ADS

ADS
হোম / খেলাধুলা / বিস্তারিত
ADS

আইপিএল আয়োজন করতে চায় শ্রীলঙ্কাও

8 May 2021, 7:18:39

করোনার প্রকোপে মাঝপথে স্থগিত হয়ে গেছে আইপিএলের ১৪তম আসর। নতুন করে কবে শুরু হবে বা কোথায় হবে—এ নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। আইপিএল না হলে বিসিসিআইয়ের বিশাল আর্থিক ক্ষতি হবে। এই ক্ষতি সামাল দিতে হলেও টুর্নামেন্টের বাকি অংশ আয়োজন করতে হবে। এখন কোথায় হবে আইপিএলের বাকি অংশ, সেটাই বড় প্রশ্ন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, করোনার মধ্যে ভারতে হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। তাহলে বিদেশের মাটিতেই হতে পারে পরের ম্যাচগুলো। এর মধ্যে প্রথমে আসছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের নাম। এরপরই আসে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার নাম। এবার জানা গেল, শ্রীলঙ্কাও চাইছে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলো আয়োজন করতে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, আগামী সেপ্টেম্বরে নিজেদের ঘরের মাঠে আইপিএলের বাকি অংশ আয়োজন করতে চায় শ্রীলঙ্কা। ডেকান ক্রনিক্যালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের ম্যানেজিং কমিটির প্রধান প্রফেসর অর্জুনা ডি সিলভা।

ডি সিলভা বলেন, ‘চলতি বছরের জুলাই-আগস্ট মাসে আমাদের দেশে শ্রীলঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করা হবে। ফলে আমাদের দেশের ক্রিকেট পরিকাঠামো যে একেবারে তৈরি সেটা তো বুঝতেই পারছেন। তা ছাড়া আমাদের দেশের কোভিডের হার খুবই কম। যদিও শুনছি আরব ও ইংল্যান্ড আইপিএল আয়োজন করতে চায়। তবে আমরাও কিন্তু পিছিয়ে নেই। বিসিসিআই কর্তারা রাজি হলে আমরা এই প্রতিযোগিতা আমরা আয়োজন করতেই পারি।’

এর আগে গতকাল শুক্রবার ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো জানিয়েছে, আইপিএলের বাকি অংশ আয়োজন করতে এরই মধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে ইংল্যান্ডের চারটি কাউন্টি ক্লাব—মিডলসেক্স, সারে, ওয়ারউইকশায়ার ও ল্যাঙ্কাশায়ার।

এরই মধ্যে নিজেদের আগ্রহের কথা ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডকে (ইসিবি) জানিয়েছে ক্লাবগুলো। ভেন্যু হিসেবে লর্ডস, ওভাল, এজবাস্টন ও ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের কথা উল্লেখ করেছে ক্লাবগুলো।

এর আগে আইপিএল দেশের বাইরে আয়োজন নিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বোর্ডের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, ‘বিদেশেই বাকি আইপিএল হবে। কিছু কিছু অপশন নিয়ে বোর্ডে সবার মধ্যে আলোচনা হচ্ছে। বিসিসিআইকে কেবল এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

চলতি বছরের শেষ দিকে ভারতের মাটিতেই হওয়ার কথা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেটার সম্ভাব্য ভেন্যুও আরব আমিরাত। সেই হিসেবে আইপিএলও আরব আমিরাতে করা যায়। কিন্তু সমস্যা অন্য জায়গায়। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলছে, সেপ্টেম্বরে আরব আমিরাতে প্রচণ্ড গরম পড়ে। ওই তাপমাত্রায় আইপিএল আয়োজনে বোর্ডের একাংশ রাজি নয়।

তাই বাকি ৩১ ম্যাচ আয়োজনের জন্য তাই ইংল্যান্ডের নাম আসছে। সেখানে এক ভেন্যু থেকে অন্য ভেন্যুতে যাতায়াতগত সুবিধা রয়েছে। বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, আইপিএলের টাইম জোন সমন্বয় করে ম্যাচ সম্প্রচারে রাজি সম্প্রচারকারী স্টার স্পোর্টসও।

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসার কথা। বিসিসিআই সেই বিশ্বকাপের আয়োজনস্বত্ব অদলবদল করে নিতে চাইছে। যদি তা সম্ভব হয়, তাহলে ভারতও প্রতিদানস্বরূপ অসি বোর্ডকে আইপিএল আয়োজনের জন্য ভেন্যু ব্যবহারের প্রস্তাব দিতে পারে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

বোর্ডের এক সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, ‘অস্ট্রেলিয়া সরকার যদি রাজি থাকে, তাহলে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এই প্রস্তবে রাজি হবে। ভারতের টাইম জোনের সঙ্গে মাত্র সাড়ে তিন ঘণ্টার ব্যবধান পার্থের। যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে, তাহলে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্ব পার্থে দেখা যেতে পারে। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে অস্ট্রেলীয় সরকারের অনুমতি এবং সম্প্রচারকারী সংস্থা রাজি হলে।’

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: