ADS

ADS
হোম / টিপস / বিস্তারিত
ADS

আইলাইনার ব্যবহারের সঠিক নিয়ম

22 April 2021, 7:52:37

মেয়েরা তাদের চোখ সাজাতে বেশ পছন্দ করেন। চোখে তারা কাজলের পাশাপাশি আইলাইনার ব্যবহার করে থাকেন। তবে আইলাইনার ব্যবহারে সবাই যে খুব একটা পটু এমনটা নয়। কিন্তু খুব সহজেই আইলাইনার ব্যবহার করা শিখে চোখের সৌন্দর্য ফুটিয়ে তোলা যায়।

যেভাবে আইলাইনার ব্যবহার করবেন

প্রথমে জানতে হবে আইলাইনার কত প্রকারের রয়েছে। আইলাইনার মূলত তিন ধরনের। লিকুইড, পেন্সিল এবং জেল। পেন্সিল আইলাইনার ব্যবহার করা সব থেকে বেশি সহজ। কারণ পেন্সিল চোখের আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে না। অন্যদিকে, জেল আইলাইনার সহজে উঠে যায় না। চোখে লম্বা সময় স্থায়ী থাকে এবং ছড়িয়ে যায় না। আর লিকুইড আইলাইনার ব্যবহার করা খুবই কঠিন। তবে সবচেয়ে বেশি প্রচলিত হলো লিকুইড আইলাইনার। প্রথমে তরল হিসেবে থাকে লিকুইড আইলাইনার। চোখে লাগানোর পর এটা শুকিয়ে যায়। চোখে দেওয়ার সময় একটু অসাবধান হলেই চোখের আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে।

হাত কাঁপলে আইলাইনার দিতে কষ্ট অনেক বেড়ে যায়। কিন্তু এ সমস্যা খুব সহজেই সমাধান করা সম্ভব। প্রথমে শান্ত হয়ে বসতে হবে। হাতের কুনুইকে কোনো একটা সমান জায়গায় রাখতে হবে। এভাবে চোখে আইলাইনার দেওয়া অনেক সহজ। হাত তুলনামূলক কম কাঁপে। আবার কারো কারো ক্ষেত্রে একদমই কাঁপে না।

যদি একদমই নতুন হয়ে থাকেন তাহলে লিকুইড আইলাইনার ব্যবহারের ক্ষেত্রে চোখে ডট চিহ্ন বসিয়ে সমানভাবে তাদের সংযোগ স্থাপন করে লিকুইড লাইনার ব্যবহার করতে পারবেন।

আইলাইনার ব্যবহারের ক্ষেত্রে মুখ খুব বেশি নড়াচড়া করানো যাবে না। যদি চোখের আশপাশে লেগে যায় তাহলে হাত দিয়ে না মেকআপ রিমুভার বা তুলো দিয়ে মুছে নিতে হবে। আবার প্রাইমার কিংবা কন্সিলার দিয়েও ছড়িয়ে পড়া লাইনারগুলোকে ঢেকে দেওয়া সম্ভব। তবে যদি ঢেকে ফেলার ইচ্ছে না থাকে তাহলে ভেসলিন দিয়ে লাইনার তুলে ফেলতে পারবেন অনেক দ্রুত।

তবে সময় বাঁচানোর সহজ রাস্তা হলো চোখের পাতার লাইন ধরেই লাইনার ব্যবহার করা। তাহলে একবারেই সুন্দরভাবে লাইলার ব্যবহার করা যায় এবং আশপাশে ছড়ানোর ভয় থাকে না।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: