ADS
হোম / আজকের রান্না / বিস্তারিত
ADS

আলু দিয়ে কাতলা মাছের পাতলা ঝোল

14 July 2021, 6:32:53

আলু দিয়ে কাতলা মাছের পাতলা ঝোল। আলু মোটামুটি ছোট-বড় সব ধরণের মাছের সাথে যায়। আলু দিয়ে মাছ আর ঝালে-ঝোলে গরম গরম তরকারী অসাধারণ এক স্বাদ। আলু আর মাছ দিয়ে রাঁধতে গিয়ে একটা বিষয় আমি অভিজ্ঞতা হয়েছে যে, আলু দিয়ে মাছের তরকারী রান্না করে গরম গরম খেয়ে নিতে হয়, নতুবা ঠান্ডা করে আবার গরম করে বা পরেরদিন খেলে আলু শক্ত হয়ে যায় এবং সে আসল স্বাদও আর থাকেন। অতএব রান্না করে সাথে সাথে খেয়ে নেয়াই ভাল, আসল স্বাদটা পাওয়া যায়।
নিচের নির্দেশনা দেখে আপনিও একবার যেষ্টা করে দেখতে পারেন।

উপকরণঃ–
১-দেড় কেজি ওজনের মাছ
৩-৪টি আলু, নির্ভর করে সাইজের উপর (আমি ৩টি দিয়েছি)
২ টি পেঁয়াজ বড় সাইজের
৫/৬টি রসুনের কড়া
আধা কাপ তেল
১টেবিল চামচ হলদি পাউডার
৩ কোয়ার্টার টেবিল চামচ ধনিয়া পাউডার
১ টেবিল চামচ মরিচের গুঁড়ো
লবন স্বাদ অনুযায়ী
৭-৮টি কাঁচামরিচ
এক মুষ্টি ধনিয়াপাতা কুচি করে।

প্রস্তুত প্রণালীঃ-
চুলায় পাতিল গরম করে তেল ঢেলে দিন। তেল গরম হয়ে আসলে পেঁয়াজ, রসুন এবং লবন একসাথে ছেড়ে দিন। (চাইলে পেঁয়াজ এবং রসুন ব্লেন্ড অথাবা পাটাপুতায় বাটা করে নিতে পারেন সময় এবং গ্যাস বা লাকড়ি বাঁচানোর জন্য)। এবার ভাল করে নেড়ে আধা লিটার পানি দিয়ে ১০/১৫ মিনিটের জন্য রেখে ঢেকে নিয়মিত খেয়াল রাখুন। পানি শুকিয়ে গেলে হলদি, ধনিয়া ও মরিচের গুঁড়া দিয়ে দিয়ে ভাল করে নেড়ে একদম স্লো ফ্লেইমে রেখে দিন ৫/৭মিনিট। নিয়মিত খেয়াল রাখুন যাতে পুড়ে না যায়। এবার টুকরো করা আলু ছেড়ে দিয়ে নেড়ে আরো ৫/৭ মিনিটের জন্য ঢেকে রেখে দিন। আলু কষানোর পর মাছ ছেড়ে দিয়ে আরো এক মিনিট কষিয়ে ১.৫ লিটার পানি দিয়ে আগুন ফুল ফ্লেইমে ঢেকে রাখুন। অন্তত ২০মিনিট পর ঢাকনি উঠিয়ে যদি দেখেন পানি ঘন হয়ে আসছে তাহলে কাঁচামরিচ আর ধনিয়া পাতা দিয়ে আগুন বন্ধ করে দিন। খেয়াল রাখবেন পানি যেন বেশী ঘন না হয়। এই পাতলা ঝোলটাই সবচেয়ে সুস্বাদু। ব্যাস হয়ে গেল আলু দিয়ে কাতলা মাছের পাতলা ঝোল। কিছুক্ষণ পর ঢাকনা সরিয়ে সুগন্ধ নিন। আহ, কি মজার ঘ্রাণ……
গরম ভাতের সাথে সার্ভ করুন।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: