লাইফস্টাইল | |

Archive by category লাইফস্টাইল

করলার যত গুণ

করলার যত গুণ

করলা আপনার প্রিয় খাবার নাও হতে পারে। কিন্তু এর পুষ্টিগুণের কথা চিন্তা করে আপনার খাদ্যতালিকায় এটি রাখতে হবে। ডায়াবেটিসসহ আরও বেশ কিছু রোগের যম এই করলা। করলায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, বি ও সি রয়েছে। একই সঙ্গে এতে বিটা-ক্যারোটিন, লুটেইন, আয়রন, জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে। এছাড়া গবেষণায় দেখা গেছে, করলার আরও তিনটি উপাদান […]

Read More

আনারস কেন খাবেন?

আনারস কেন খাবেন?

‘আনারস জ্বরের ঔষধ’– এরকম কথা হয়ত সকলেই শুনেছেন৷ তবে আনারস শুধু জ্বর নয়, নানা অসুখ-বিসুখকে দূরে রাখতে ও সংক্রমণ দমন করতে সাহায্য করে৷ চলুন দেখে নিই আনারসের উপকারীতা- সংক্রমণ দমন করে আনারসে রয়েছে ব্রোমেলিন এনজাইম, যা সংক্রমণ দমন করে৷নিয়মিত আনারস খেলে খেলাধুলা করতে গিয়ে পাওয়া আঘাত বা ক্ষত সহজেই সেরে যায়৷ দাঁত সুস্থ রাখে আনারস […]

Read More

কচু শাক শুধু দৃষ্টিশক্তি বাড়ায় না, কমায় হৃদরোগ-ডায়াবেটিসের ঝুঁকিও

কচু শাক শুধু দৃষ্টিশক্তি বাড়ায় না, কমায় হৃদরোগ-ডায়াবেটিসের ঝুঁকিও

কচু দক্ষিন এশিয়া ও দক্ষিন-পূর্ব এশিয়ার সুপরিচিত একটি সবজি। এর কাণ্ড সবজি এবং পাতা শাক হিসেবে খাওয়া হয়।কচুর কাণ্ড ও পাতা-সবকিছুতেই প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি রয়েছে। কচু শাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রোটিণ, ফ্যাট, কার্বোহাইড্রেট, ডিটারেরী ফাইবার, শর্করা, বিভিন্ন খনিজ ও ভিটামিন রয়েছে। নিয়মিত কচু শাক খেলে যেসব উপকারিতা পাওয়া যাবে- ১. কচু শাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি […]

Read More

কাঁচা হলুদ এবং মধু, রোজ খেলেই অকল্পনীয় উপকার!

কাঁচা হলুদ এবং মধু, রোজ খেলেই অকল্পনীয় উপকার!

কাঁচা হলুদের গুণাবলী সম্পর্কে অনেকেই অবহিত। আয়ুর্বেদেও হলুদের উপকারিতার উল্লেখ রয়েছে। যে কোনও রকমের ইনফেকশন হলে কাঁচাহলুদের জুড়ি মেলা ভার। ত্বকের সমস্যা, লিভারের সমস্যা, পেশীর সমস্যা, কাটাছেঁড়ার জন্যও হলুদ উপকারী। এছাড়া হলুদের মধ্যে এমন উপাদান থাকে যার ফলে গ্যাসট্রিক, পেপটিক এবং গ্যাসট্রিক আলসার ইত্যাদির জন্যও উপকারী। অ্যালঝাইমারস-এর জন্যও কাঁচা হলুদ উপকারী। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন […]

Read More

রক্ত পরিশোধন করে পটল

রক্ত পরিশোধন করে পটল

পটল গ্রীষ্মকালীন একটি সবজি। রান্না, ভাজি, ভর্তা –সবভাবেই এটি খাওয়া যায়। খেতে সুস্বাদু এই সবজিটির গুণেরও শেষ নেই। এতে থাকা ভিটামিন এ, বি ১, বি ২ ,সি, ক্যালসিয়াম এবং  অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের জন্য দারুণ উপকারী। এ কারণে সু্স্থ থাকতে নিয়মিত খাদ্য তালিকায় পটল রাখতে পারেন। পটল খেলে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়- ১. পটলে খুব কম পরিমাণে […]

Read More

আতা ফলের গুনাগুন ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

আতা ফলের গুনাগুন ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

‘আতা’ বাংলাদেশের একটি সাধারণ ফল হিসেবে পরিচিত। এই ফলের গাছটি বসতবাড়ির আঙিনায়, ঝোপঝাঁড়ে সহজেই জন্মে থাকে। আতা গাছ উচ্চতায় শরিফার চেয়ে একটু বড়। আতা দেখতে অনেকটা হৃৎপিন্ডের আকৃতির মত এবং এই ফলের আকার শরিফার চেয়ে বড় ও মসৃণ চর্মযুক্ত। অযত্নে অবহেলায় আতাফলের বংশ বিস্তার হয়ে থাকে, ফলও ধরে সহজে। স্বাদে শরিফার চেয়ে একটু কম। গ্রামের […]

Read More

ভুট্টা খাওয়ার উপকারিতা

ভুট্টা খাওয়ার উপকারিতা

রাস্তাঘাটে বের হলেই চোখে পড়ে ঠেলাগাড়িতে করে ভুট্টার বেচাকেনা। শুধু খেতেই ভালো নয়, ভুট্টার আছে নানা পুষ্টিগুণও। নিউজ এইট্টিনের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতি ১০০ গ্রাম ভুট্টায় ১৯ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ২ গ্রাম ফাইবার, ৩ গ্রাম প্রোটিন, ১.৫ এর কম চর্বি এবং ৮৬ ক্যালরি থাকে। চলুন দেখে নেয়া যাক ভুট্টা খাওয়ার উপকারিতা- অ্যানিমিয়ার ঝুঁকি কমায়: ভুট্টায় আছে […]

Read More

পুষ্টি গুণে ভরা পেঁপে!

পুষ্টি গুণে ভরা পেঁপে!

পেঁপে একটি ফল যা মানুষ কাচা তথা সবুজ অবস্থায় সব্জি হিসেবে এবং পাকা অবস্থায় ফল হিসাবে খেয়ে থাকে। এর অনেক ভেষজ গুণও রয়েছে। এর ইউনানী নাম পাপিতা, আরানড খরবূযা। এবং আয়ুর্বেদিক নাম অমৃততুম্বী। পেঁপে বাংলাদেশে অত্যন্ত সহজলভ্য একটি ফল। রসালো এই ফল খেতেও বেশ সুস্বাদু। হজমে সহায়তাকারী খাবার হিসেবেও পেঁপের জুড়ি মেলা ভার। পেঁপেতে পেপেইন […]

Read More

ভয়ানক ক্ষতিকর সাধের ধনেপাতা

ভয়ানক ক্ষতিকর সাধের ধনেপাতা

শীত উপলক্ষে নানা পদের শাক-সবজির পাশাপাশি বাজারে ধনেপাতার ছড়াছড়ি। দামে সস্তা, স্বাদে অতুলনীয়। নিত্যদিনের বিভিন্ন খাবারে ধনেপাতা ব্যবহৃত হয়। তবে অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, ব্যাপক ব্যবহৃত সুস্বাদু ও সুপরিচিত এই পাতাটির অনেক ঔষধি গুণাগুণের পাশাপাশি বেশ কিছু ক্ষতিকর দিকও রয়েছে। যেগুলো একজন সুস্থ সবল মানুষকে মুহূর্তে কাহিল করে দিতে পারে। ১. লিভারের ক্ষতি করে: অতিরিক্ত ধনেপাতা খেলে এটি লিভারের […]

Read More

জেনে নিন খেজুরের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

জেনে নিন খেজুরের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

খেজুর অত্যন্ত সুস্বাদু ও বেশ পরিচিত একটি ফল। যা ফ্রুকটোজ এবং গ্লাইসেমিক সমৃদ্ধ। এটা রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়ায়। খেজুর ফলকে চিনির বিকল্প হিসেবে ধরা হয়ে থাকে। খেজুর শক্তির একটি ভালো উৎস। তাই খেজুর খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীরের ক্লান্তিভাব দূর হয়। আছে প্রচুর ভিটামিন বি। যা ভিটামিন বিসিক্স মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক। খেজুরের পুষ্টি উপাদান সম্পর্কে […]

Read More