আবারও ঝুলন্ত ক্যাবল অপসারন, ক্ষতির মুখে সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো

রাজধানীতে হাজার হাজার গ্রাহকের ইন্টারনেট ও কেবল সংযোগ কেটে দিয়ে ঝুলন্ত তার অপসারণ করছে সিটি করপোরেশন। আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়া সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো বলছে, বিনা নোটিশেই অভিযান চালানো হয়েছে। এদিকে বেধে দেওয়া সময়ের মধ্যে তার সরিয়ে না নেওয়ায় এ কার্যক্রমের অজুহাত সিটি করপোরেশনের।

রাজধানীর সৌন্দর্য বর্ধন ও ঝুঁকিমুক্ত চলাচল নিশ্চিতে আবারও ঝুলন্ত তার অপসারণ শুরু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। বিকল্প ব্যবস্থা না করে হঠাৎ কেবল অপসারণে অভিযানে বিভিন্ন এলাকায় ইন্টারনেট ও কেবল নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

এর আগে গত সেপ্টেম্বর ব্যবসায়ীদের ঝুলন্ত তার অপসারণের আশ্বাসে এই কার্যক্রম থেকে আসে কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাটির নিচ দিয়ে কেবল সংযোগ টানার কাজ চলমান রয়েছে জানিয়ে ইন্টারনেট সেবাদাতাদের সংগঠন আইএসপিএবি বলছে, কোনো নোটিশ না দিয়েই এবারের কার্যক্রম শুরু করেছে সিটি করপোরেশন। এতে, তারা কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার আগেই ভোগান্তিতে পড়ছেন হাজার হাজার গ্রাহক।

আইএসপিএবি মহাসচিব মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘আমরা একটা উদ্যোগ নিয়ে আগাচ্ছি এবং কাজও হচ্ছে। সিটি করপোরেশন আমাদেরকে আগে জানানো উচিত ছিল। আমাদেরকে আগে জানালে আমরাও কিছু সহযোগিতা করতে পারতাম। ওনারা আমাদেরকে কিছু না জানিয়ে নিজেদের মতো কাজ করে। আসলে ভোগান্তিটা গ্রাহকের হবে আর আমাদের আর্থিক ক্ষতি হবে।’

সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো, বেধে দেওয়া সময়ের মধ্যে তার অপসারণ না করায় এই অভিযান শুরু হয়েছে বলে জানান ঢাকা দক্ষিণ সিটির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। যা চলবে জানুয়ারি মাসজুড়ে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানজিলা কবির বলেন, ‘মেয়র মহোদয় যেভাবে নির্দেশনা দিয়েছিলেন সেভাবে তাদের কোনো কার্যক্রম দেখতে পাচ্ছি না বলেই আবার ক্যাবল সংযোগগুলো আমরা অপসারণের উদ্যোগ নিয়েছি।’

আইএসপিএবি বলছে, হঠাৎ চালানো এই অভিযানে রাজধানীর কাঁঠাল বাগান এলাকায় বর্তমানে ৫০ হাজার গ্রাহক সেবা বঞ্চিত হয়ে পড়েছেন। এসব সংযোগ ঠিকঠাক করতে সময় লাগবে কয়েকদিন।— সময়নিউজ