ভারত থেকে আমদানিকৃত চালের কেজি ৩৪ টাকা

বাংলাদেশে ৫০ হাজার টন সেদ্ধ চাল আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। ভারত থেকে বাংলাদেশে আমদানিকৃত প্রতি কেজি চালের গড় দাম পরবে ৩৪ টাকা। বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি ক্রয় কমিটির বৈঠকে এ প্রস্তাব অনুমোদিত হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবু সালেহ মোস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বলেন, আজকের বৈঠকে আট প্রস্তাব উত্থাপন করা হলেও সড়ক ও জনপথ বিভাগের দুটি এবং বিদ্যুৎ বিভাগের একটি প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। এছাড়া টেবিলে চাল ক্রয়ের একটি প্রস্তাবের অুনমোদন দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, টেবিলে উত্থাপিত ৫০ হাজার টন নন-বাসমতি সিদ্ধ চাল ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যার মূল্য ধরা হয়েছে ১৬৮ কোটি ৬২ লাখ ৯০ হাজার ৪০০ টাকা। সুপারিশকৃত দরদাতা হচ্ছে ভারতের বীরভূমের এমএসপিকে এগ্রি লিংক প্রাইভেট লিমিটেড। প্রতি টন চালের দাম ৩৯৭ দশমিক ৭১ মার্কিন ডলার। আর প্রতি কেজি চালের মূল্য বাংলাদেশি টাকায় ভ্যাট ছাড়া ৩৩ দশমিক ৭২ টাকা।

এর আগে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব বলেন, নন-বাসমতী অথ্যাৎ সেদ্ধ চাল তিন ধাপে দেড় লাখ টন চাল আমদানি করা হবে। ভারতের বীরভূম থেকে ২ ডিসেম্বর ৫০ হাজার টন নন–বাসমতী চাল এবং ভারতের মুম্বাই থেকে ৯ ডিসেম্বর আরও ৫০ হাজার টন একই ধরনের চাল আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেয় ক্রয় কমিটি।