বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর, কুষ্টিয়ায় বিএনপি কার্যালয়ে ছাত্রলীগের হামলা

কুষ্টিয়া পৌরসভার ৫ রাস্তার মোড়ে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) রাতের আঁধারে ওই ভাস্কর্যের ডান হাত, পুরো মুখমণ্ডল ও বাঁ হাতের অংশ বিশেষ ভেঙে ফেলে দুর্বৃত্তরা।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে শনিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। মিছিলটি শহরের এনএস রোডের বিএনপি কার্যালয় অতিক্রম করার সময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা হামলা চালায়। এ সময় বিএনপি কার্যালয়ে ভেতর টেবিল-চেয়ার ব্যাপক ভাংচুর করা হয়।

এদিকে শনিবার সকালে শহরের বঙ্গবন্ধু সুপার মার্কেট চত্বর ও থানা মোড়ে আওয়ামী লীগ জাসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন বিক্ষোভ সমাবেশ, মিছিল ও মানববন্ধন করে।

কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম জানান, পৌরসভার উদ্যোগে শহরের প্রাণকেন্দ্র পাঁচ রাস্তার মোড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে গত মাসে। একই বেদিতে বঙ্গবন্ধুর তিন ধরনের তিনটি ভাস্কর্য নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়া এ বেদিতে জাতীয় চার নেতার ভাস্কর্যও থাকবে। এরই মধ্যে বঙ্গবন্ধুর একটি ভাস্কর্য স্থাপনের কাজ প্রায় সম্পন্নের পথে। হঠাৎ করে শনিবার রাতে দুর্বৃত্তরা ভাস্কর্যটির ডান হাত, পুরো মুখমণ্ডল ও বাঁ হাতের অংশবিশেষ ভেঙে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

শনিবার সকালে এ ঘটনা জানাজানি হলে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ঘটনার প্রতিবাদে সকালে আওয়ামী লীগ, জাসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সামাজিক সংগঠন বিক্ষোভ সমাবেশ, মিছিল ও মানববন্ধন করে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভির আরাফাত জানান, সিসি টিভির ফুটেজ দেখে ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করা হয়েছে। শীঘ্রই তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।