নিষেধাজ্ঞা শেষে বাজারে ইলিশ

২২ দিন বন্ধ থাকার পর গতকাল থেকে ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে। শুক্রবার ছুটির দিনে রাজধানীর বাজারে ইলিশের সরবরাহ শুরু হয়েছে। দাম হাতের নাগালে হওয়ায় সন্তুষ্ট ক্রেতারা।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতিটি ৫০০ গ্রাম ইলিশ বিক্রি হচ্ছে চার থেকে সাড়ে চারশ টাকায়। এক থেকে দেড় কেজির ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে সাতশো থেকে নয়শো টাকায়। আর দুই কেজির ইলিশের দাম সতেরো’শো টাকা পর্যন্ত। বাজারে ইলিশ বিক্রি শুরু হওয়ায় অন্যান্য মাছের দামও কমতির দিকে।

এর আগে ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ২২দিন চাঁদপুরসহ সারাদেশের নদ-নদীতে ইলিশসহ সকল ধরনের মাছ ধরা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে সরকার। নিষেধাজ্ঞার সময় ইলিশ আহরণ, পরিবহন, বাজারজাতকরণ, মজুত ও ক্রয়-বিক্রয় সম্পন্ন নিষিদ্ধ ঘোষণা করে সরকার।

প্রতিবছর আশ্বিনের ভরা পূর্ণিমার আগে-পরে ইলিশের ডিম ছাড়ার আসল সময়। এ সময় সাগর থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ নদীতে ছুটে আসে। এই সময়কে বিবেচনায় নিয়ে প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও মোট ২২ দিন ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করে সরকার। আইন অমান্যকারীকে মৎস্য আইনে সাজা প্রদান করা হয়।

ঢাকা, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, নরসিংদী, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, জামালপুর, চট্টগ্রাম, ফেনী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর. চাঁদপুর, কক্সবাজার, খুলনা, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, বরিশাল, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, ভোলা, বরগুনা ও ঝালকাঠি- এ ৩৬ জেলায় নিষেধাজ্ঞা কার্যকর ছিল।