কালো কোটে ফিরলেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি-আইনজীবীরা

তিনমাস পর বুধবার থেকে আবার কালো কোটে ফিরলেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ও আইনজীবীরা। সুপ্রিম কোর্টে মামলার শুনানিকালে বিচারপতি এবং আইনজীবীদের কালো কোট পরা বাধ্যতামূলক করার কারণে এ নিয়ম অনুসরণ শুরু করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে গত ১২ আগস্ট থেকে সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি ও আইনজীবীদের কালো কোট পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। একারণে গত তিনমাস দেশের সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি ও আইনজীবীরা শারীরিক ও ভার্চুয়াল আদালতে কালো কোট ও গাউন ছাড়াই মামলার শুনানিতে অংশ নিয়েছেন। তারা সুপ্রিম কোর্টের নির্ধারণ করে দেওয়া পোষাকে গত তিনমাস শুনানিতে অংশ নেন। কিন্তু শীত চলে আসায় দেশের সকল আদালতে বিচারক ও আইনজীবীদের কালো কোট পরার জন্য প্রধান বিচারপতির নির্দেশে গত ১৬ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবরের স্বাক্ষরে বিজ্ঞপ্তি জারি করেন। পরদিন ১৭ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি ও আইনজীবীদের কালো কোট পরা বাধ্যতামূলক হিসেবে আরা একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। এ অবস্থায় মামলার শুনানির সময় আবার বিচারপতি ও আইনজীবীরা কালো কোট পরেছেন।

কালো কোট পরার জন্য সুপ্রিম কোর্টের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আসন্ন শীত মৌসুমে সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিরা শারীরিক উপস্থিতিতে এবং ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মামলা শুনানিকালীন ক্ষেত্রমতো টার্নড আপ সাদা কলার ও সাদা ব্যান্ডসহ সাদা শার্ট ও প্যান্ট/শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ এবং জাজেস কোট পরিধান করবেন। ‘সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীরা শারীরিক উপস্থিতিতে এবং ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মামলা শুনানিকালীন ক্ষেত্রমতো টার্নড আপ সাদা কলার ও সাদা ব্যান্ডসহ সাদা শার্ট ও প্যান্ট/শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ এবং কালো কোট/শেরওয়ানি পরিধান করবেন’।

অধস্তন আদালতের বিষয়ে সোমবার জারি করা পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আসন্ন শীত মৌসুমে বিচারক ও আইনজীবীরা মামলা পরিচালনার সময় ক্ষেত্রমতো সাদা শার্ট বা সাদা শাড়ি/সালোয়ার কামিজ ও সাদা নেকব্যান্ড/কালো টাই এবং কালো/শেরওয়ানি পরিধান করবেন।