অভ্যুত্থানচেষ্টার দায়ে তুরস্কে সামরিক কর্মকর্তার মুত্যুদণ্ড

তুরস্কে অভ্যুত্থান ঘটানোর চেষ্ঠার অভিযোগে সামরিক বাহিনীর কমান্ডারকে মুত্যুদ্ণ্ডাদেশ দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। ২০১৬ সালে তুরস্কের সেনাবাহিনীর একটি অংশ প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানকে ক্ষমতাচ্যূত করতে অভ্যুত্থানের ব্যর্থ চেষ্টা চালায়। অভ্যূত্থান চেষ্টার সময় এফ-১৬ মডেলের একটি বিমান দেশটির পুলিশ বাহিনীর একটি দপ্তর ও পার্লামেন্টে বোমা বর্ষণ করে। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এই কর্মকর্তাকে সাজা দিলো আদালত।

বোমা বর্ষণ করা বিমানের পাইলটকেও একই শাস্তি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে ওই ব্যর্থ অভ্যূত্থানে জড়িত থাকার দায়ে ৭৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। বোমা হামলা চালানো বিমানে জ্বালানি সরবরাহের দায়ে একজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেলকে যাজ্জীবন কারদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আঙ্কারার আদালতে ব্য্যর্থ অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রায় ৫০০ জনের বিচার চলছিল। এর মধ্যে ৩৬৫ জন আগে থেকেই কারারুদ্ধ ছিল বলে  জানা গেছে।

ব্যর্থ ক্যুয়ে জড়িত থাকার দায়ে গত জুনে আদালতের রায়ে ১২১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। গত বছরেও ১৫১ জনকে একই সাজা দেওয়া হয়। ওই ঘটনার পর রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের প্রশাসন একের পর এক শাস্তি প্রদান করে যাচ্ছে। সূত্র: আল জাজিরা, রয়টার্স।