সারাদেশে অনির্দিষ্টকালের নৌযান ধর্মঘটের ডাক

নৌপথে সন্ত্রাস বন্ধ এবং বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ ১১ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। ধর্মঘট সফল করতে শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ১০টা বরিশাল লঞ্চঘাট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন শ্রমিকরা। ১৯ অক্টোবর রাত ১২টা থেকে ধর্মঘট শুরু হওয়ার কথা জানিয়েছে নৌযান শ্রমিকদের এই সংগঠনটি।

নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. শাহ আলম বলেন, নৌযান শ্রমিকদের নিয়োগপত্র প্রদান, বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, খাদ্যভাতা প্রদান, প্রভিডেন্ট ফান্ড গঠন, কর্মরত অবস্থায় শ্রমিকদের মৃত্যু হলে পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ, ভারতগামী নৌযানের শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাস প্রদান, নৌপথে নাব্যতা রক্ষা এবং নৌপথে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, ডাকাতি ও পুলিশি নির্যাতন বন্ধসহ ১১ দাবিতে শ্রমিকরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছেন।

গত মার্চ মাসে শ্রমিক ধর্মঘটের মুখে সরকার শ্রমিকদের দাবি মেনে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও এ পর্যন্ত একটিও মানা হয়নি। এ অবস্থায় নৌযান শ্রমিক সংগঠনের জোট নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন ১৯ অক্টোবর থেকে এ ধর্মঘটের ডাক দেয়।

সভাপতি মো. শাহ আলম বলেন, ১১ দফা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট দেশব্যাপী চলবে। ধর্মঘটে যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী, অয়েল ট্যাঙ্কারসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন বরিশাল যুগ্ম সম্পাদক একিন আলী মাস্টার বলেন, ধর্মঘট সফল করতে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের নৌযান শ্রমিকরা প্রস্তুতি নিয়েছেন। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরিশাল লঞ্চঘাটে সংগঠন কার্যালয় থেকে ধর্মঘটের সমর্থনে নগরীতে শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নদীবন্দরে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী ১৯ অক্টোবর রাত থেকে ধর্মঘট পালনে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।