সোলাইমানির হত্যাকারীদের লক্ষ্যবস্তু করে প্রতিশোধ নেবে তেহরান: ইরান

বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডস কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাশেম সোলাইমানি হত্যায় জড়িতদের লক্ষ্যবস্তু বানানোর ঘোষণা দিয়েছে তেহরান।

মার্কিন প্রেসিডেন্টকে উদ্দেশ করে ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডসের বর্তমান প্রধান মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি বলেন, ‘জনাব ট্রাম্প, আমাদের মহান কমান্ডারের (সোলাইমানি) শাহাদাতের প্রতিশোধ সুনির্দিষ্ট, গুরুতর ও সাচ্চা। আমরা সম্মানজনক ও ন্যায্য প্রতিশোধ নেব।’

শনিবার তেহরানে এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন রেভ্যুলেশনারি গার্ডসের প্রধান। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়। এ ছাড়া হোসেইন সালামির এ বক্তব্য গার্ডসের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে।

ট্রাম্পকে উদ্দেশ করে হোসেইন সালামি আরও বলেন, আপনি ভাবছেন– আমরা আমাদের শহীদ ভাইয়ের (সোলাইমানি) রক্তের বদলা নিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় একজন নারী রাষ্ট্রদূতের ওপর হামলা চালাব? আপনার এ ধারণা ভুল। আমরা তাদেরই লক্ষ্যবস্তু করব, যারা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সোলাইমানি হত্যায় জড়িত।

ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডসের প্রধান আরও বলেন, এই হত্যাকাণ্ডে যে-ই জড়িত, আমরা তাকে লক্ষ্যবস্তু করব। আর এটি একটি গুরুতর বার্তা।

কাশেম সোলাইমানি ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডসের এলিট কুদস ফোর্সের প্রধান ছিলেন। চলতি বছরের জানুয়ারিতে ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হন তিনি।
নাম প্রকাশ না করা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে যে, ইরান সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার পরিকল্পনা করছে। তারা আগামী নভেম্বরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত লানা মার্কসকে হত্যার মাধ্যমে প্রতিশোধ নিতে চায়।

ওই প্রতিবেদন প্রকাশের পর চলতি সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে কড়া হুমকি দেন। তিনি বলেন, তার দেশের ওপর কোনো হামলা হলে হাজার গুণ শক্তিশালী জবাব দেয়া হবে।

তবে দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা শুক্রবার জানায়, রাষ্ট্রদূত মার্কসকে হত্যা ষড়যন্ত্রের কোনো প্রমাণ তারা পায়নি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুমকির জবাব দেন ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডসের প্রধান মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি। বলেন, জেনারেল কাশেম সোলাইমানি হত্যায় যারা জড়িত, শুধু তাদের লক্ষ্যবস্তু করে একটি সম্মানজনক প্রতিশোধ নেবে তেহরান।