মুনমুনের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়ালেন ময়ূরী

নব্বই দশকের চাহিদাসম্পন্ন নায়িকা মুনমুন। সম্প্রতি টাংগাইলের সখিপুরে মসজিদের সামনে নেচে জনরোষানলে পড়েন তিনি। এর রেশ কাটতে না কাটতেই তার সংসার ভাঙনের খবর মিডিয়ায় চাউর হয়। এসব নিয়ে বেশ খারাপ সময় পার করছেন এই নায়িকা। এমন সময় তার পাশে দাঁড়িয়েছেন চলচ্চিত্রাঙ্গনের অনেকেই।

মুনমুনকে সাহস দিয়েছেন গুণী নির্মাতা মালেক আফসারি, নব্বই দশকের আরেক চাহিদা সম্পন্ন নায়িকা ময়ূরী, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানসহ অনেকে।

সম্প্রতি মুনমুন ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন—জীবনে অনেক ঝড়ের মোকাবিলা করেছি ঠিক, কিন্তু এমন ঝড় আসতে পারে ভাবিনি কখনো। তবে কথায় আছে বিপদেই বন্ধুর পরিচয়। যারা আমাকে সহযোগিতা থেকে শুরু করে মানসিক সাপোর্ট দিয়েছেন তাদের জানাই আমার অন্তর থেকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা। শুরু থেকেই আমার উস্তাদ মালেক আফসারি স্যার সাহস দিয়েছেন, ভেঙে পড়তে না করেছেন, বলেছিলেন, দেখি কি করা যায়।

তিনি আরো লিখেন—ময়ূরী ছোট বোনটি আমার জন্য খুব মন খারাপ করেছে, বার বার সান্ত্বনা দিয়েছে। বোন তোকে প্রাণ ভরা ভালোবাসা।
‘টারজান কন্যা’, ‘মৃত্যুর মুখে’, ‘রাজা’, ‘মরণ কামড়’, ‘রানী কেন ডাকাত’, ‘আজকের সন্ত্রাসী’সহ অসংখ্য সুপারহিট সিনেমায় অভিনয় করেন মুনমুন। বর্তমান সময়ের দেশ সেরা নায়ক শাকিব খানের প্রথম ব্যবসাসফল সিনেমার নায়িকাও ছিলেন মুনমুন। সিনেমাটির নাম ‘বিষে ভরা নাগীন’।