বিকাল তিনটায় মুখোমুখি তামিম-উইলিয়ামসন

করোনাভাইরাসের কারণে সবকিছু থেমে আছে। ঘরবন্দি অবস্থায় সময় কাটছে সবার। মাঠে নেই কোনো ধরনের খেলাধুলা। সঙ্কটময় এই সময়ে ক্রিকেটভক্তদের বিনোদন যোগাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিয়মিত লাইভ করে আসছেন তামিম ইকবাল। প্রতিটা লাইভেই চমক রাখছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। তামিমের এবারের চমক কেন উইলিয়ামসন।

নিউজিল্যান্ডের অধিনায়কের সঙ্গে আজ (২১ মে) বিকাল তিনটায় আড্ডায় বসবেন টাইগারদের নতুন অধিনায়ক। নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে সময় পার্থক্যের কারণে লাইভের সময়ে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এরআগে প্রতিটা লাইভই রাত সাড়ে দশটা থেকে শুরু হয়েছে।

সোমবার রাতে তামিমের অতিথি ছিলেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এরপর মঙ্গলবার রাতে তামিমের আড্ডায় যোগ দেন বাংলাদেশের তিন সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান, মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও খালেদ মাসুদ পাইলট।

সোয়া এক ঘণ্টার এই লাইভে বিশেষ অতিথি হিসেবে ১৫ মিনিটের জন্য ছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ওয়াসিম আকরাম। এর কয়েক ঘন্টা পর কেন উইলিয়ামসনকে লাইভে আনার ঘোষণা দেওয়া হয় তামিমের অফিসিয়াল পেজ থেকে।

তামিমের লাইভ শো-এর শুরুটা মুশফিকুর রহিমকে দিয়ে। এরপর তার অতিথি হন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মাশরাফি বিন মুর্তজা। পরের পর্বে দুই পেসার তাসকিন আহমেদ ও রুবেল হোসেনকে নিয়ে ক্রিকেট, ক্রিকেটের বাইরের অনেক বিষয় নিয়ে কথা বলেন তামিম।

এরপর বাংলাদেশ ওপেনার তার আড্ডায় একসঙ্গে হাজির করেন বাংলাদেশের তিন সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার, খালেদ মাহমুদ সুজন ও নাঈমুর রহমান দুর্জয়কে।

দেশের ক্রিকেটারদের মাঝেই সীমাবদ্ধ থাকেননি তামিম। দেশের বাইরের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিকে লাইভে হাজির করেন তামিম।

পরের পর্বে দেখা যায় আরও বড় চমক। ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মার সঙ্গে অনেক বিষয় নিয়ে আড্ডায় মাতেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। এরপর তামিমের লাইভে যোগ দেন বাংলাদেশের চার ক্রিকেটার মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার, লিটন দাস ও তাইজুল ইসলাম।