মাশরাফি-তামিমরা কে কত টাকা দিলেন করোনা তহবিলে?

করোনাভাইরাস মোকাবেলার জন্য ফান্ড গঠন করেছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। নিজেদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক এই ফান্ডে দিয়েছেন ২৭ জন ক্রিকেটার। এখন পর্যন্ত ফান্ডে অর্থের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩০ লাখ টাকা। কর কেটেকুটে থাকবে ২৬ লাখ টাকা। এবার দেখে নেওয়া যাক, কার কত বেতন এবং সেখান থেকে কত টাকা গেল করোনাভাইরাস ফান্ডে। নিষিদ্ধ থাকায় সাকিব আল হাসানের নাম তালিকায় নেই। তিনি অন্যভাবে সাহায্য করবেন।

মুশফিকের বেতন ৬ লাখ ২০ হাজার। ফান্ডে জমা দিয়েছেন ৩ লাখ ১০ হাজার। ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের বেতন ৬ লাখ ৫০ হাজার থেকে অর্ধেক মানে ৩ লাখ ২৫ হাজার দিয়েছেন ফান্ডে। লিটন কুমার দাস আর মেহেদি মিরাজ দিয়েছেন ১ লাখ ৩৭ হাজার টাকা করে। যা তাদের বেতনের অর্ধেক। ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা মাসিক বেতন পাওয়া তাইজুল দিয়েছেন ১ লাখ ২৫ হাজার। মিঠুন ১ লাখ, নাজমুল হোসেন শান্ত ৭৫ হাজার আর মুমুনিল হক দিয়েছেন ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা।

১ লাখ টাকা করে মাসিক বেতন পাওয়া নাঈম হাসান এবং আবু জায়েদ রাহি দিয়েছেন ৫০ হাজার করে। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বেতন ৪ লাখ ৩০ হাজার। দিয়েছেন ২ লাখ ১৫ হাজার। ৩ লাখ টাকা করে বেতন পাওয়া সৌম্য সরকার, শফিউল ইসলাম আর মুস্তাফিজুর রহমান দিয়েছেন দেড় লাখ টাকা করে। এছাড়া সাইফউদ্দিন ৭৫ হাজার, আফিফ হোসেন ধ্রুব আর নাঈম শেখ দিয়েছেন ৫০ হাজার করে।

সদ্য সাবেক হওয়া ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বেতন পান ৪ লাখ ৫০ হাজার। ফান্ডে দান করেছেন ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা। পেসার আল-আমিন হোসেন দিয়েছেন ৫০ হাজার। এছাড়া ১ লাখ টাকা বেতন পাওয়া ৭ ক্রিকেটার মেহেদী হাসান, হাসান মাহমুদ, সাইফ হাসান, ইয়াসির আলী, তাসকিন আহমেদ, নাসুম আহমেদ, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব দিয়েছেন ৫০ হাজার টাকা করে। ক্রিকেটারদের মোট বেতন ৬০ লাখ ৩০ হাজারের অর্ধেক ৩০ লাখ ১৫ হাজার টাকা জমা পড়েছে করোনা ফান্ডে।