চবিতে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৬

বিভাগের ক্রিকেট খেলার দায়িত্ব বন্টন নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই পক্ষ। এতে ক্যাস্পাস জুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

আজ রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের লেডিস ঝুপড়িতে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। এতে দু’পক্ষের অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের লেডিস ঝুপিড়িতে ক্রিকেট খেলার দায়িত্ব বন্টন নিয়ে দুই পক্ষের কর্মীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর অনুসারী কর্মীদের মারধর করে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেলের অনুসারী কর্মীরা। পরে কলা ও মানববিদ্যা অনুষদ ঝুপড়িতে সভাপতির অনুসারী কর্মীদের মারধর করে সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী কর্মীরা।

পরে পরিস্থিতি কিছুক্ষণ শান্ত থাকার পর আবারও শাহ জালাল হল ও শাহ আমানত হলে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। উভয় গ্রুপের নেতা-কর্মীরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র হাতে মহড়া দিতে দেখা যায়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল বলেন, ‘বিভাগের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে জুনিয়রদের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও সামান্য ঝামেলা হয়েছে। আমরা বিষয়টা দ্রুত সমাধানের চেষ্টা করছি।’

শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু বলেন, বিষয়টি সামান্য। এটি নিয়ে আমরা বসছি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর এসএম মনিরুল হাসান বলেন, আমরা দুই পক্ষকেই ডেকেছি। দুই পক্ষের সাথে বসে বিষয়টি সমাধান করা হবে।