করোনাভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশ যুক্তরাজ্যের সঙ্গে কাজ করবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুবরাজ চার্লস করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করে এই প্রাণঘাতী রোগ মোকাবেলায় যুক্তরাজ্যের সঙ্গে কাজ করার বাংলাদেশের অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছেন।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, শেখ হাসিনা আজ এক পত্রে বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ বন্ধু যুবরাজ চার্লসের গতিশীল নেতৃত্বের ভুয়সী প্রশংসা করেন।
শেখ হাসিনা বলেন, ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং আমাদের অভিন্ন ঐতিহ্য ও পরিবেশ রক্ষায় আমি সব সময় আপনার ব্যক্তিগত মহত্ব এবং প্রাতিষ্ঠানিক নেতৃত্বের প্রশংসা করি।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি যুবরাজের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছেন। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে যুক্তরাজ্যের সঙ্গে এক সাথে কাজ করতে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে।
শেখ হাসিনা করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশের পরিস্থিতি এবং এর প্রতিরোধে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে যুবরাজকে অবহিত করেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার একেবারে প্রাথমিক পর্যায় থেকেই কঠোর প্রতিরোধ ব্যবস্থাসহ দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে বিমান বন্দরে আগত যাত্রীদের স্ক্রিনিং এবং বিমান বন্দরের কাছে কোয়ারেন্টিন এলাকায় তাদেরকে রাখার ব্যবস্থা। জানুয়ারির প্রথম থেকেই এ ব্যবস্থা নেয়া হয়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি ব্যক্তিগতভাবে বহুপ্রতীক্ষিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে গৃহীত সকল উৎসব উদযাপন ও সমাবেশ স্থগিত করেছেন। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। জনগণকে ঘরে রাখতে ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
শেখ হাসিনা যুবরাজ চার্লসের পূর্ণ আরোগ্য এবং যুক্তরাজ্যের জনগণের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।