‘উহানে প্রকৃত মৃত্যু ৪২ হাজার, ৩২শ’ নয়’

চীনের শহর উহান থেকে প্রথম ছড়িয়ে পরে প্রাণঘাতী মহামারী করোনা ভাইরাস। বিশ্বব্যাপী অন্তত ৩০ হাজার মানুষের প্রান কেড়েছে এই ভাইরাস। এরমধ্যে চীনে সরকারি হিসেবে প্রান হারিয়েছেন ৩ হাজার ৩শ মানুষ।

তবে স্থানীয়দের ধারণা, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে উহানেই অন্তত ৪২ হাজার মানুষ মারা গেছেন।

তারা বলছেন, ভাইরাস ছড়িয়ে পরার পর থেকেই অসংখ্য মৃটদেহের সৎকার করা হয়েছে। এমনও দিন গিয়েছে যেদিন ২৪ ঘন্টায় ৩ হাজার ৫শ মানুষের সৎকার করা হয়েছে ওই শহরে।

স্থানীয়রা বলেন, এ থেকেই বোঝা যায় ১২ দিনে ৪২ হাজার মানুষের মরদেহ পোড়ানো হয়েছে। বাসিন্দাদের দাবি এপ্রিলের ৫ তারিখ স্থানীয় কিং মিং উৎসবের আগেই মরদেহ পোড়ানো ছাই অর্থাৎ অস্থি খুঁজে পাওয়া যাবে।

ডিসেম্বরে করোনা ভাইরাস ধরা পরার পর সারা শহরে লকডাউন ঘোষণা করে চীন সরকার। তবে এবার প্রায় দুইমাস পর হুবেই প্রদেশে যাদের করোনা ধরা পড়েনি তাদেরকে চলতি মাসের ২৫ তারিখ মধ্যরাত থেকে প্রদেশের বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে উহান শহরে যাতায়াতের ব্যাপারে এপ্রিলের ৮ তারিখ পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।