খুলনাকে হারিয়ে শীর্ষে ঢাকা

মাঝখানে ছন্দ হারালেও ঢাকা প্লাটুন আবার ফিরেছে পুরনো দাপটে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ৩১তম ম্যাচে খুলনা টাইগার্সকে ১২ রানের ব্যবধানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে দলটি। ঢাকার তরুণ পেসার হাসান মাহমুদ একাই শিকার করেছেন ৪ উইকেট। তার পারফর্মেন্সে ম্লান হয়ে গেছে খুলনার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের ঝড়ো ইনিংস।

সিলেটে বৃষ্টির কারণে বিলম্বিত ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রান জড়ো করে ঢাকা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন আসিফ আলী। ছয়ে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৩ বলের মোকাবেলায় ৩৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ২টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে। তার দ্রুতগতির ব্যাটিংয়েই দল পায় বড় পুঁজি।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে মুমিনুল হক ৩৬ বলে ৩৮, আরিফুল হক ৩০ বলে অপরাজিত ৩৭ ও ওপেনার তামিম ইকবাল ২৩ বলে ২৫ রান করেন।

খুলনার পক্ষে মোহাম্মদ আমির ২টি এবং আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও শফিউল ইসলাম একটি করে উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই আমিনুল ইসলাম বিপ্লব (৪), মেহেদী হাসান মিরাজ (১৫), ও শামসুর রহমানের (৩) উইকেট হারায় খুলনা। প্রতিরোধ গড়তে পারেননি রাইলি রুশোও, ১৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এরপর নাজিবউল্লাহ জাদরানের (৩১) সাবধানী ব্যাটিংয়ের সমর্থন পেয়ে চড়াও হন অধিনায়ক ‍মুশফিকুরর রহিম।

শেষদিকে ঢাকাকে বেশ ভয় পাইয়ে দিয়েছিলে মুশফিক। ২৭ রানে আসরের তৃতীয় অর্ধ-শতক পূর্ণ করেন তিনি। তবে হাসান মাহমুদের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন ৩৩ বলে ৬৪ রান করে, যে ইনিংসে হাঁকিয়েছিলেন ৬টি চার ও ৪টি ছয়।

এই ম্যাচে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিপিএলে ২০০০ রানের মাইলফলক গড়া মুশফিক বিদায় নিলে খুলনা আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। শেষ অবধি নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে খুলনার সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৬০ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

টস: খুলনা টাইগার্স

ঢাকা প্লাটুন: ১৭২/৪ (২০ ওভার)

আসিফ ৩৯*, মুমিনুল হক ৩৮, আরিফুল ৩৭*, তামিম ২৫

আমির ২৭/২, বিপ্লব ১৫/১, শফিউল ৪৪/১

খুলনা টাইগার্স: ১৬০/৮ (২০ ওভার)

মুশফিক ৬৪, জাদরান ৩১, রুশো ১৮

হাসান ৩২/৪, শাদাব ২৫/১, মাশরাফি ২৬/১

ফল: ঢাকা প্লাটুন ১২ রানে জয়ী।