সারাদেশে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা | |

সারাদেশে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা

ঘণ্টায় প্রায় ২০ কিলোমিটার গতিবেগে বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’। এ গতিবেগে আঘাত হানলে বেশ ক্ষয়ক্ষতির শঙ্কা রয়েছে। এই গতিবেগ আরও বাড়তে পারে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে চট্টগ্রাম বন্দরে ৬ নম্বর, পায়রা ও মোংলা সমুদ্র বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অফিস। পাশাপাশি দেশের সব আভ্যন্তরীণ নৌরুটে নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ ঘণ্টায় ১২৫ কিলোমিটার বেগের বাতাসের শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসছে উপকূলের দিকে, আপাতত এর গতিমুখ সুন্দরবনের দিকে। শনিবার বিকেলের পর বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ের প্রভাব অনুভূত হতে পারে। মধ্যরাতে খুলনা অঞ্চল দিয়ে বুলবুল উপকূল অতিক্রম করতে পারে। আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে এমনটাই জানা গেছে।

আবহাওয়া অফিস থেকে বলা হয়েছে জানায়, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৬৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ৬৪৫ কিলোমিটার, মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৫৮৫ কিলোমিটার এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৫৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে। এটি ঘনীভূত হয়ে উত্তর/উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে। আগামী শনিবার (৯ নভেম্বর) যেকোনো সময় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মংলা উপকূলে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড়টি।