ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জনের পরিচয় মিলেছে | |

ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জনের পরিচয় মিলেছে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় যাত্রীবাহী দুটি ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৬ জনের মধ্যে ১০ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহত বাকিদের নামপরিচয় এখনো জানা যায়নি। তাদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

যাদের পরিচয় জানা গেছে তারা হলেন- চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের পশ্চিম রাজারগাঁওয়ের মুজিবুল রহমান (৫৫), হবিগঞ্জের ভোল্লার ইয়াছিন (১২), চুনারুরঘাটের তিরেরগাঁওয়ের সুজন আহমেদ (২৪), মৌলভীবাজারের জাহেদা খাতুন (৩০), চাঁদপুরের কুলসুম বেগম (৩০), হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের আল-আমিন (৩০), হবিগঞ্জের আনোয়ারপুরের আলী মোহাম্মদ ইউসুফ (৩২), হবিগঞ্জের বানিচংয়ের আদিবা (২), ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের সোহামনি (৩) এবং চাঁদপুরের উত্তর বালিয়ার ফারজানা (১৫)। বাকি ছয়জনের নামপরিচয় এখনো জানা যায়নি। তাদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

মঙ্গলবার ভোররাত তিনটার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও আন্তঃনগর তূর্ণা নিশীথার মধ্যে সংঘর্ষে তারা নিহত হন। এছাড়া ভয়াবহ ওই দুর্ঘটনায় আহত হন ৫০ জনেরও বেশি যাত্রী। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ১০ জনের লাশ বায়েক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অস্থায়ী তথ্যকেন্দ্রে আছে। বাকিদের পরিচয় জানতে ঘটনাস্থলে তথ্যসেবা কেন্দ্র খোলা হয়েছে।

দুর্ঘটনার পরপরই লাকসাম ও আখাউড়া থেকে দুটি রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধারকাজ শুরু করে। উদয়ন এক্সপ্রেস সামনের দিকের অক্ষত নয়টি বগি নিয়ে বেলা ১১টার দিকে চট্টগ্রামে পৌঁছায়। আর মূল লাইন মেরামত শেষে বেলা পৌনে ১১টার দিকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় তূর্ণা নিশীথা।