কিছুটা কমেছে সবজির দাম, পেঁয়াজে এখনও ঝাঁজ | |

কিছুটা কমেছে সবজির দাম, পেঁয়াজে এখনও ঝাঁজ

পঞ্জিকা মতে শীত আসতে আরও দুই সপ্তাহ বাকি।  তবে দেশের বিভিন্ন জেলায় শীতের আমেজ লক্ষ্য করা গেছে। পথঘাটে দেখা মিলেছে কুয়াশার।  শীত যত কাছে আসছে বাজারে শীতকালীন সবজির সরবরাহ ততই বাড়ছে। একইসঙ্গে কিছুটা কমেছে শাক-সবজির দাম। তবে আগের অবস্থানেই রয়েছে পেঁয়াজের বাজার। চাহিদা বেড়েছে কলিসহ নতুন পেঁয়াজের।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, ফুলকপি, বাঁধাকপি, মূলা, শালগম, শিম, পালংশাক, মূলাশাক, সরিষা শাকের সরবরাহ গত কয়েক দিনের তুলনায় বেড়েছে। ফলে এসব সবজিতে কেজিতে দাম কমেছে পাঁচ থেকে দশ টাকা পর্যন্ত। আর শাকের ক্ষেত্রে আটি প্রতি দাম কমেছে দুই থেকে পাঁচ টাকা।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে অনেকটাই কমেছে শিম ও পাকা টমেটোর দাম। খুচরা বাজারে ৭০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রির হওয়া শিম এ সপ্তাহে পাওয়া যাচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। আর ১২০ টাকা থেকে পাকা টমেটো নেমেছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়।

বিক্রেতারা জানান, সরবরাহ বাড়ায় শীতের সবজির দাম কমতে শুরু করেছে। আগামী দুই সপ্তাহে এই দাম আরও কমে আসবে বলে জানান বিক্রেতারা।

এক সপ্তাহ আগে ৮০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হওয়া নতুন গোল আলু এ সপ্তাহে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। বরবটি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ টাকা, পেঁপে ২৫ থেকে ৩৫ টাকা। ৪০ থেকে ৫০ টাকা পিস হিসেবে বিক্রি হওয়া ফুলকপি ও বাঁধাকপি এখন বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩৫ টাকার মধ্যে।

সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে বেগুনের দাম। ৮০-১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া বেগুন বর্তমানে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, মূলা ২০ থেকে ৩০ টাকা, করল্লা ৬০ থেকে ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সবজির বাজার কিছুটা কমলেও আগের অবস্থানেই আছে পেঁয়াজের দর। খুচরা বাজারে এখনো প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২৪০ টাকায়। আর পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের অবস্থায় ১৮০ টাকা থেকে ২০০ টাকা।

এদিকে দামের এমন ঊর্ধগতির কারণে পেঁয়াজ মিলছে না রাজধানীর পাড়া-মহল্লার দোকানগুলোতে। বাজারের খুচরা দোকানেও পেঁয়াজের বিক্রি আশাহতভাবে কমে গেছে। তবে শুকনো পেঁয়াজের তুলনায় বাজারে আসা নতুন পেঁয়াজের চাহিদা বেশি। কলিসহ প্রতি কেজি নতুন পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায়।