ইডেনে শেখ হাসিনার জন্য রাজকীয় আয়োজন | |

ইডেনে শেখ হাসিনার জন্য রাজকীয় আয়োজন

কলকাতার ইডেন গার্ডেনে প্রথমবারের মতো ডে-নাইট টেস্টে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচের প্রথম দিন ইডেনে হাজির হবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উপস্থিত হওয়ার কথা রয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও।

ইডেনে শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানাতে রাজকীয় আয়োজন করেছে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল। শেখ হাসিনার আগমণকে স্মরণীয় করে রাখতে রাজকীয় মধ্যাহ্নভোজেরও আয়োজন করছে তারা।

আগামী ২২ নভেম্বর ইডেনে বসবে তারার হাট। ভারত-বাংলাদেশ টেস্টের প্রথম দিন উপস্থিত থাকবেন শচিন টেন্ডুলকার, রাহুল দ্রাবিড়সহ ভারতের জীবিত প্রায় সব অধিনায়ক।

খুব অল্প সময়ের জন্য ইডেনে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা। তাকে আপ্যায়নের জন্য থাকবে গঙ্গার ইলিশ, পাবদা সর্ষে, ভেটকি পাতুরি, ডাব চিংড়ি। মাছের এই পদগুলি ছাড়াও দুই বাংলার প্রথামাফিক সব রকম জনপ্রিয় পদই থাকবে খাবার টেবিলে। যার মধ্যে থাকছে শুক্তো, আলু পোস্ত, ফুলকপির রোস্ট, ছানার ডালনাসহ ৫০ রকমেরও বেশি পদ।

ভাত, রুটি, পোলাও, পায়েস, চাটনির মতো পদগুলি থাকছেই। যেসব অতিথির মাছ পছন্দ নয়, তাদের জন্য থাকবে মুরগি ও খাসির হরেক রকম পদ।

শেখ হাসিনাকে উপহারের জন্য আন্তর্জাতিক মানের বিশেষ পোশাক প্রস্তুতকারককে দিয়ে বানানো হচ্ছে ডিজাইনার শাড়ি। সঙ্গে থাকবে শাল। এছাড়া বাংলার ঐতিহ্য মেনে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকেও দেওয়া হবে বিশ্ব বাংলার নানা উপহার।

এই টেস্টকে স্মরণীয় করে রাখতে কোমর বেঁধে নেমেছেন সিএবি কর্তারা। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বোর্ড প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর মাত্র কয়েক দিনের মধ্যে বাংলাদেশ ও ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টকে দিন-রাতের টেস্ট খেলতে রাজি করানো যদি চমক নম্বর এক হয়, দ্বিতীয় চমকটা সিএবি দিতে চাইছে ম্যাচের আয়োজনে তুমুল জাঁকজমক করে।

মূল উদ্দেশ্য টেস্ট থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়া দর্শককে পাঁচ দিনের ফরম্যাটে মাঠে ফেরানো। সেই উদ্দেশ্য অনেকটাই সফল। কারণ ম্যাচের প্রথম দিনের টিকেট কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

ম্যাচে টস হবে স্বর্ণমুদ্রায়। নামী গহনা প্রস্তুতকারক সংস্থা ওই মুদ্রা তৈরি করছে। সঙ্গে অভ্যাগতদের স্মরণিকা হিসেবে দেওয়ার জন্য থাকবে রুপার মুদ্রা। ৬০ টি বিশেষ টাইও তৈরি করা হচ্ছে ভিভিআইপি অতিথিদের জন্য।