রাজধানীতে ৮ম রেডিও এশিয়া কনফারেন্স ২৯-৩১ অক্টোবর | |

রাজধানীতে ৮ম রেডিও এশিয়া কনফারেন্স ২৯-৩১ অক্টোবর

আগামীকাল রাজধানীতে উদ্বোধন হতে যাচ্ছে অষ্টম রেডিও এশিয়া কনফারেন্স এবং রেডিও সং ফেস্টিভাল। ‘রেডিও অল এরাউন্ড আস: মোর দ্যান জাস্ট আ মিডিয়াম’ প্রতিপাদ্য নিয়ে রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে ২৯ থেকে ৩১ অক্টোবর তিনদিনের এই আসরের পর্দা উঠবে সকাল ১০টায়। সকালে এই আসরের উদ্বোধন করবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশের টেলিভিশনের সহায়তায় এশীয় প্রশান্ত অঞ্চলের বেতার ও টেলিভিশন সংস্থাগুলোর সম্মিলিত সংগঠন এশিয়া প্যাসিফিক ব্রডকাস্টিং ইউনিয়ন-এবিইউ আয়োজিত এ সম্মেলনে বাংলাদেশ ছাড়াও বিভিন্ন দেশের ৬৩ জন প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছেন। সোমবার বিকেলে ঢাকায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

এ সময় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান বলেন, ‘এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এবিইউ রেডিও এশিয়া সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিশেষজ্ঞরা এমন একটি দেশকে দেখতে পাবেন যে দেশ আজ ডিজিটাল রূপান্তরের সকল চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে একটি মাল্টিমিডিয়া ও মাল্টিপ্ল্যাটফর্ম সমৃদ্ধ তথ্য জগত বিনির্মাণের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।’ তথ্যসচিব আবদুল মালেক ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে চলমান বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে দুইটি উপ-কমিটির সভা সম্পর্কেও জানান তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী -মুজিববর্ষ উপলে অন্যান্য উপকমিটির মধ্যে দু’টি তথ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে সম্পৃক্ত। একটি হচ্ছে মিডিয়া এন্ড ডকুমেন্টেশন উপ-কমিটি আরেকটি হচ্ছে চলচ্চিত্র ও তথ্যচিত্র উপ-কমিটি। আজকে আমরা যে বিষয়গুলো এখানে আলোচনা করছি, তার অন্তর্নিহিত বিষয় হচ্ছে- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধুমাত্র বাঙ্গালি জাতির পিতা নন, তিনি সমগ্র বিশ্বে নির্যাতিত মানুষের নেতা ছিলেন। তার জন্মশতবার্ষিকীটাকে আমরা এমনভাবে পালন করতে চাই, যাতে করে তিনি যে মাপের নেতা ছিলেন, মুজিবর্ষের অনুষ্ঠানমালা যেন সেই পর্যায়ের হয়। যাতে মুজিববর্ষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানসহ পুরো বছর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের মনোযোগ আকর্ষণ করে। সেই লক্ষ্যে এবং একই সঙ্গে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ওপর বাংলাদেশ-ভারতযৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র এবং আর বাইরে অন্যান্য যে ছবিগুলো নির্মাণ করা হবে, সেগুলো নিয়ে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করছি।’

‘বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে সরকার রাজনীতি করছে’, বিএনপি’র এমন মন্তব্যের বিষয়ে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান বলেন, ‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে তো আমরা রাজনীতি করছি না। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি শুধু রাজনীতি নয়, অপরাজনীতি করছে। কারণ খালেদা জিয়ার অসুস্থতা কোনো অতিরিক্ত কোনো অসুস্থতা নয়, এ অসুস্থতা বহু বছরের পুরনো, প্রায় দুই দশকের। এই সমস্যাগুলো বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ে এবং এই সমস্যা নিয়ে তিনি দুবার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন, বিরোধী দলের নেতার দায়িত্ব পালন করেছেন। এরপর একটি দলের চেয়ারপার্সনের দায়িত্ব পালন করেছেন। তার হাঁটুতে অপারেশন হয়েছে এটাও বেশ বহুবছর আগের। তার এই সমস্যাগুলোকে বড় করে দেখিয়ে রাজনীতিতে আসবে বিএনপি, এটি বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি নয় অপরাজনীতি। তাকে অসুস্থ দেখিয়ে জনগণের সহানুভতি পাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপির কাছে আমার প্রশ্ন, বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য ছাড়া আর জনগণের কোনো ইস্যু কি তাদের কাছে নেই? সবসময় বেগম জিয়ার স্বাস্থ্যকে ঘিরেই তাদের রাজনীতি! প্রতিনিয়ত সকাল-বিকাল বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে তারা ব্যস্ত।তাদের কাছে কি জনসম্পৃক্ত কোনো বিষয় নেই?’