আবরার হত্যার পর থেকে ক্যাম্পাসে খোঁজ নেই বুয়েট উপাচার্যের | |

আবরার হত্যার পর থেকে ক্যাম্পাসে খোঁজ নেই বুয়েট উপাচার্যের

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে (২১) পিটিয়ে হত্যার ঘটনার পর এখন পর্যন্ত ক্যাম্পাসে আসেননি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলছেন, ‘উপাচার্য ক্যাম্পাসে আসেননি। তার সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন ধরেননি।’

এদিকে উপাচার্যের ব্যক্তিগত সহকারী গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন, ‘প্রচণ্ড অসুস্থ হওয়ায় ক্যাম্পাসে আসতে পারেনি তিনি।’

এদিকে, সন্তান হত্যার খবর পেয়ে কুষ্টিয়া থেকে বুয়েট ক্যাম্পাসে এসেছেন আবরারের বাবা মা ও পরিবারের সদস্যরা।

ক্যাম্পাসে এসেই ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদতে থাকেন আবরারের বাবা। এ সময় তার চাচা জহুরুল ইসলাম চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে পুলিশের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

উল্লেখ্য, সোমবার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলের আবাসিক ছাত্র আবরার ফাহাদ মুজাহিদের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। তিনি ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। আবরারকে হলের সিঁড়িতে পড়ে থাকতে দেখা যায়। সকালে কয়েকজন সহপাঠী অচেতন অবস্থায় আবরারকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।