র‌্যাব হেফাজতে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের চেয়ারম্যান ফিরোজ | |

র‌্যাব হেফাজতে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের চেয়ারম্যান ফিরোজ

রাজধানীর ধানমণ্ডি কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের চেয়ারম্যান ও কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতা শফিকুল আলম ফিরোজকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য নিয়ে গেছে র‌্যাব-২।

শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে র‌্যাব ক্লাবটির সভাপতি ফিরোজকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয়। পরে সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে শফিকুল আলমকে নিয়ে ক্লাবটিতে অভিযান শুরু হয়।

র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ এর নেতৃত্বে ক্রীড়াচক্রে ক্যাসিনো থাকার গোয়েন্দা খবরে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে সেখানে অভিযানে যায় র‌্যাব-২।

জানা গেছে, কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে র‌্যাব। ভেতরের কাউকে বাইরে আসতে দেয়া হচ্ছে না। আর বাইরের কোনো লোকজনকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

র‌্যাব সূত্র জানায়, দুপুর দেড়টায় ফিরোজকে আটক করা হয়। পরে বিকাল ৪টা থেকে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের আশপাশে অবস্থান নেন র‌্যাব সদস্যরা।

র‌্যাব সূত্র আরও জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের এই ক্লাবে ক্যাসিনো ও জুয়া আসর চলছে। এ খবর পেয়েই সেখানে অভিযান চালানো হয়।

গত বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর বিকালে গুলশান ২ নম্বরের ৫৯ নম্বর সড়কে যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বাসা এবং ফকিরাপুল ইয়ংমেন্স ক্লাবে একযোগে অভিযান চালায় র‌্যাব। এছাড়া ওই এলাকার ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, বঙ্গবন্ধু এভিনিউর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্র এবং বনানীর আহমেদ টাওয়ারে গড়ে তোলা একটি ক্যাসিনোতেও অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে ক্লাবগুলো থেকে জুয়ার আড্ডা চালানোর আয়োজন, নগদ দেশি ও বিদেশি টাকা, অস্ত্র ও নেশাজাতীয় বিভিন্ন দ্রব্য জব্দ করা হয়। অভিযানে ইতোমধ্যে একাধিক যুবলীগ নেতা গ্রেফতার হয়েছেন।