জি কে শামীম প্রসঙ্গে যা বললেন নায়িকারা

টেন্ডার মুঘল জি কে শামীম গ্রেফতার হবার পর থেকেই তার দরবারে একাধিক মডেল ও নায়িকার যাতায়াত ছিল বলে বিভিন্ন মহলে আলোচনা চলছে বেশ কয়েকদিন ধরেই। এমন কি কথা উঠে নিজের মনোরঞ্জন ও টেন্ডার হাতিয়ে নিতে ওইসব মডেল ও নায়িকাদের ব্যবহার করতেন শামীম। তার সঙ্গে নাকি ৫০জন মডেল-নায়িকার ওঠা-বসা ছিল বলে গুঞ্জন উঠে মহলগুলোতে।

দিনভর সেসব নায়িকাদের মধ্যে রত্না, মিষ্টি জান্নাত, রাহা তানহা খান, শিরিন শিলার নাম ইন্ডাস্ট্রিতে আলোচনায় রয়েছে। অনুসন্ধানে আরও অনেকের নাম আসছে বলে বাতাসে খবর ভাসছে।

দেশের বেসরকারি টেরিভিশন আরটিভির অনলাইন সংস্করণের এক প্রতিবেদনে এই খবর উঠে আসে। এ ব্যাপারে মিষ্টি জান্নাত বলেন, আমি কোনোভাবেই এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নই। আমাকে ইঙ্গিত করে একটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। এটা আমার ইমেজ নষ্ট করা ছাড়া আর কিছুই নয়। আর এই শামীমের সঙ্গে আমার কোনও পরিচয় নেই। অনেকেই বলেছেন আমাকে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত বলার জন্য। দেখুন আমি কেন সংবাদ সম্মেলন করতে যাব। আমি তো কোনও অপরাধ করিনি। আর অপরাধের সঙ্গে জড়িতও নই।

কথা প্রসঙ্গে মিষ্টি বলেন, স্ক্যান্ডাল হলে বলিউডের সালমান খানের সঙ্গে করত। কোথা থেকে শামীম না কে তার সঙ্গে স্ক্যান্ডাল জুড়িয়ে দিল।

ঢালিউডের এই নায়িকা ভারতের ভোজপুরি একটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। গেল কয়েক মাস ধরেই মুম্বাইয়ে অবস্থান করতে দেখা গেছে মিষ্টিকে। তার সঙ্গে সালমান খানের দেখা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে। এই নায়িকা বলেন, তার সঙ্গে কেন দেখা হবে। তবে হ্যাঁ আমি যদি সেই জায়গাতে যেতে পারি অবশ্যই কোনো একদিন দেখা হয়ে যাবে।

অন্যদিকে নায়িকা রত্না জি কে শামীমের দরবারে চলা ফেরার অভিযোগটিও অস্বীকার করেছেন গণমাধ্যমের কাছে।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান এ বিষয়ে বলেন, দেখুন একজন শিল্পী হওয়া সাধনার ব্যাপার। একটি গণমাধ্যমে আমি সংবাদ পড়েছি। সেখানে কোনও শিল্পীর নাম সরাসরি বলা হয়নি। আমার কথা হলো উপযুক্ত প্রমাণ ছাড়া আমাদের কোনও শিল্পীকে হেয় করবেন না। আর কেউ যদি সত্যি অপরাধী হয়ে থাকে সেক্ষেত্রেও শিল্পী সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। সূত্র- আরটিভি অনলাইন