পুলিশ হেফাজতে মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লা

উত্তপ্ত পরিস্থিতির মাঝেই নয়া মোড় কাশ্মীরে৷ পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হল মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাকে৷ রবিবার রাতেই তাঁদের গৃহবন্দি করা হয়েছিল৷ সোমবার (৫ আগস্ট) মেহবুবাকে পুলিশ নিজের হেফাজতে নিয়ে হরি নিবাস গেস্ট হাউসে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে৷

প্রসঙ্গত, সোমবার থেকেই প্রবল অসন্তোষের মুখে পড়ছে চলেছে কাশ্মীর উপত্যকা। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে আগেই অমরনাথ যাত্রীদের সরিয়ে এনেছে সরকার। এবার রবিবার মধ্যরাত পের হতেই রাজ্যের দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে গৃহবন্দি করা হয়। হাউস-অ্যারেস্ট হয়েছেন ওমর আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতি। একই সঙ্গে গৃহবন্দি করা হয় উপত্যকার অন্যতম বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা ফাজ্জাদ গনি লোনকেও। সরকারের এই নির্দেশিকা ঘিরে মধ্যরাতেই উত্তেজনা ছড়ায় কাশ্মীরে। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

এদিকে হাউস অ্যারেস্ট হওয়ার আগেই টুইট করে নিজেদের গৃহবন্দি হওয়ার আশঙ্কা জানিয়েছিলেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা। তিনি লিখে ছিলেন, যে কোনও মুহূর্তে হাউস অ্যারেস্ট হতে পারি। সরকার সেই প্রচেষ্টাই শুরু করেছে।

একই সঙ্গে গৃহবন্দি হওয়ার সম্ভাবনা উস্কে ওঠে অপর আরেক মুখ্যমন্ত্রী তথা পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতিকে ঘিরেও। এমনটাই জানিয়েছিল এনডিটিভি। কিন্তু এর কিছুপরেই একাধিক জাতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, দুই নেতাকেই গৃহবন্দি করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে মেহবুবা মুফতিকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে একটি গেস্ট হাউসে রেখেছে বলে জানা যাচ্ছে৷