ঢাবিতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান | |

ঢাবিতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে পরিচ্ছন্ন এবং নান্দনিক ক্যাম্পাস করার লক্ষে ডাকসু এবং ঢাবির এস্টেট অফিস ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’ পালনের অংশ হিসেবে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালিয়েছে।

‘ক্যাম্পাস আমার, আমি রাখবো পরিষ্কার’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে সোমবার সকালে টিএসসির সামনে থেকে এই অভিযান শুরু হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তিকে সামনে রেখে এখন থেকে প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে এই অভিযান চালানো হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এই অভিযানের উদ্বোধন করে বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০ সালে মুজিব বর্ষ, ২০২১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ  পালন করবে। তখন আমরা একটা পরিচ্ছন্ন এবং সুন্দর ক্যাম্পাস দেখতে চায় এবং সেজন্যই আমরা প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’ পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যেটা ইতিমধ্যেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট অনুমোদন দিয়েছে। আর সেই অনুসারে হল প্রাধ্যক্ষরা তাদের হল সংসদকে নিয়ে পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিরও উদ্যোগ নিয়েছেন। ফলে আমরা প্রত্যাশা করি শুধু ডাকসু বা এস্টেট অফিস না প্রতিটি বিভাগ, আবাসিক এলাকা, অনুষদ তাদের নিজ নিজ প্রাঙ্গণ পরিচ্ছন্ন রাখবে।’

ডেঙ্গু প্রতিরোধের ব্যাপারে উপাচার্য বলেন, ‘ডেঙ্গু প্রতিরোধে চিকিৎসাসেবাসহ  নানা উদ্যোগ আমরা গ্রহণ করেছি। শুধু ডেঙ্গুর জন্য নয় শিক্ষার্থীদের সুস্থ দেহ সুন্দর মনের অধিকারী হিসেবে গড়ে তোলার  জন্যও পরিচ্ছন্ন পরিবেশের বিকল্প নেই। আমরা চাই শিক্ষার্থীরা নিজেদের মধ্যে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার এই সংস্কৃতি ধারণ করবে।’

অভিযানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপচার্য অধ্যাপক মো. সামাদ, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এস এম মাকসুদ কামাল, কোষাধ্যক্ষ ড. মো কামাল উদ্দীন এবং ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসেন, সমাজ সেবা সম্পাদক আখতার হোসেন এবং  বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষক কর্মকর্তাসহ বেশ কিছু ছাত্রছাত্রীও উপস্থিত ছিলেন।