টার্কির মাংসের ভুনা | |

টার্কির মাংসের ভুনা

টার্কির মাংস খাওয়া নিয়ে অনেক রকম অভিজ্ঞতা খামারিদের মাঝে আছে। কারণ টার্কির মাংসের প্রচলন করা বা মার্কেটিং এর সময় বলা হয় কোলেস্টেরল ফ্রি, সুস্বাদু। কিন্তু অনেকেই দেখা যায় খাওয়ার পর বলে, কই তেমন স্পেশাল তো মনে হল না, মুরগির মতই লাগে ইত্যাদি ইত্যাদি। আবার কেউ কেউ তো প্রশংসায় পঞ্চমুখ, বলে- খাসির মতই স্বাদ, কেউ বলে গরু খাইলাম না খাসি খাইলাম বুঝি নাই, তবে অসাধারণ টেস্ট।

আমরা বলতে চাই, টার্কি একটি পাখি। এর টেস্ট টার্কির মতই। তবে স্বাদের ন্যুনতম একটা কোয়ালিটি তো থাকতে হবে। তা না হলে তো এর বাজার সচল হবে না, আর আমরাও ভাল একটা পুষ্টিমান সম্পন্ন প্রোটিন খাওয়া থেকে বঞ্চিত হব। তাই আমরা ভাবছি, নিয়মিত কিছু রেসিপি আপনাদের সাথে শেয়ার করব যেগুলো পরীক্ষিত।

উপকরনঃ

২৫০ মিলি তেল

১ টেবিল চামচ ঘি

৩ কেজি টার্কির মাংস কাটা

৪০০ গ্রাম পেঁয়াজ বাটা

২ টেবিল চামচ রসুন বাটা

২ টেবিল চামচ আদা বাটা

১ চা চামচ চিনি

২৫০ গ্রাম টক দই

২ পিস আলু বোখারা

৩ টেবিল চামচ টমেটো সস

১ টেবিল চামচ জিরা

১ টেবিল চামচ মরিচের গুড়া

১ কাপ পেঁয়াজ কাটা

৫ পিস এলাচ

৫ পিস দারুচিনি

৫ পিস লং

৫ পিস গোল মরিচ

৫ পিস তেজ পাতা

৫ পিস শুকনা মরিচ- আস্ত

৫ পিস কাঁচা মরিচ- আস্ত

১/৪ চামচ হলুদের গুড়া

১ চিমটি জাফরানি রং

পরিমান মত লবণ

প্রনালীঃ

প্রথমে একটি বড় হাড়িতে সব মাংস ঢেলে তাতে দই সহ সব বাটা মশলা দেই। তারপর তাতে আলু বোখারা ও গুড়া মশলা, লবণ দিয়ে এক ঘন্টা মেরিনেট করি।

তারপর চুলায় মেরিনেট করা মাংসে দুই কাপ পরিমান পানি দিয়ে সেদ্ধ করার জন্য বসাই। মাংসের পানি শুকিয়ে মাংস ভালভাবে সিদ্ধ হলে তা চুলা থেকে নামিয়ে রাখি।

এবার অন্য একটি বড় হাড়ি চুলায় বসিয়ে তেল দিয়ে তা গরম হলে ঘি ঢালি। এই মিশ্রণে কাটা পেয়াজ দেই।

পেঁয়াজের রং বাদামি বর্ণ হলে একটি বাটিতে অর্ধেক পেঁয়াজ তুলে রাখি। তারপর সেই তেলে সিদ্ধ মাংস দেই। খুব ভাল ভাবে মাংস কষিয়ে তাতে তেজপাতা, গরম মসলা ও জিরার গুড়া দেই।

তারপর আন্দাজ মত পানি দেই। তারপর জাফরানি রং পানিতে গুলে দেই। অতঃপর টমেটো সস ঢালি।

তেল উপরে ভেসে উঠলে তাতে একটু চিনি মেশনো পেঁয়াজ বেরেস্তা, কাঁচা মরিচ ও শুকনা মরিচ দিয়ে নামিয়ে ফেলি। গরম গরম পাত্রে ঢেলে পরিবেশন করুন।

ব্যাস, তৈরি হয়ে গেলে টার্কির মাংসের মজাদার রেজালা।