জয়পুরহাটে সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট চলছে | |

জয়পুরহাটে সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট চলছে

আন্তঃজেলার বিভিন্ন সড়ক সংস্কারের দাবিতে সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট পালন করছেন জয়পুরহাটের মালিক-শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ধর্মঘট শুরু হয়। চলবে সন্ধ্যা পর্যন্ত। ধর্মঘটের কারণে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা জানান, জয়পুরহাট থেকে বগুড়ার মোকামতলা ও দুপচাঁচিয়া, দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরসহ পার্শ্ববর্তী চারটি জেলার হাজার হাজার ভারী পরিবহন চলে এই রাস্তাগুলোর ওপর দিয়ে। এসব রাস্তায় পিচ ও খোয়া উঠে গিয়ে বিভিন্ন স্থানে খানাখন্দ হওয়ায় প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। এতে হতাহতের ঘটনা ছাড়াও আইনি বেড়াজালে পড়ছেন পরিহন মালিক ও শ্রমিকরা। এছাড়া রাস্তার অবস্থা খারাপ হওয়ায় গন্তব্যে পৌঁছতে দেরি হওয়া ছাড়ার জ্বালানি খরচ বাড়ছে দ্বিগুণ। অনেক সময় গাড়ির যন্ত্রাংশ ভেঙে গিয়ে আর্থিক ক্ষতিরও শিকার হতে হচ্ছে। তাই রাস্তাগুলোর সংস্কার ও মেরামতের দাবিতে জয়পুরহাট থেকে দূরপাল্লা ও আঞ্চলিক বাস- ট্রাকসহ সকল প্রকার পরিবহন চলাচল বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন করছেন তারা। এদিকে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বাস চলাচল বন্ধ রাখায় দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। হঠাৎ পরিবহন ধর্মঘটে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছেন না মানুষ। অনেককে রিকশা-অটোরিকশায় করে গন্তব্যে পৌঁছতে হচ্ছে। এজন্য তাদের গুণতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া। জয়পুরহাট জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী জানান, সকল প্রকার পরিবহন গন্তব্যে পৌঁছতে অধিক সময় ও অতিরিক্ত তেল ব্যয় হওয়া ছাড়াও যানবাহনের যন্ত্রাংশ ভেঙে যাওয়ায় বিকল হচ্ছে পরিবহনের গাড়িগুলো। অচিরেই রাস্তাগুলো সংস্কারের ব্যবস্থা না করলে উত্তরাঞ্চলের সকল রুটে সকল প্রকার পরিবহন চলাচল বন্ধ রাখা হবে।