কাঁকরোল ভাজি | |

কাঁকরোল ভাজি

কাঁকরোল, নাম শুনলেই অনেকে কাই কাই করে উঠেন! যারা এই কাঁকরোল খেতে পছন্দ করেন না তাদের জন্যই আমার আজকের এই রেসিপি, যথারীতি নিরামিষ, সহজ ও সাধারন রেসিপি এবং সবার জন্য, ছেলে বুড়ো আবালবৃদ্ধবনিতা! তবে কাঁকরোলের স্বাদ নিতে হলে আপনাকে খাদ্যরসিক হতে হবে।

খাদ্যরসিক শব্দটা ছোট হলেও আসলে এটা ছোট নয়! খাদ্যরসিক তারাই যারা নানাপদের খাবার খেয়ে অভস্থ্য এবং আরো ভাল হয়, যারা দেশ বিদেশের নানা খাবার খেয়েছেন। অনেক প্রকারের খাবারের অভিজ্ঞতা থাকলেই নুতন কোন খাবার খেলে তিনি বুঝতে পারেন, সেই খাবারটা কেমন হয়েছে। খাবার দাবারে অভিজ্ঞতা একটা বিরাট ব্যাপার। যারা খাবার দাবারে একটা নিদিষ্ট গন্ডিতে থাকেন, তারা কখনোই খাদ্যরসিক নন, খাদ্যের ভাল মন্দ স্বাদ তারা কিছুতেই করতে পারবেন না!

যাক, আশা করি যা বলতে চেয়েছি তা বুঝতে পেরেছেন! আপনারা না বুঝলে আর অন্য কে বুঝবে? নুতন যারা রান্না করছেন তাদের কাছেও অনুরোধ থাকবে এই রান্নাটা করে দেখুন, ভাল লাগবে।

পরিমান ও উপকরনঃ 
– হাফ কেজি কাঁকরোল বা কম (স্লাইস করে কাটা)
– হলুদ গুড়া, হাফ চা চামচ
– মরিচ গুড়া, ঝাল বুঝে, দুই চিমটি (না দিলেও চলে)
– হাফ চা চামচ লবন
– কয়েকটা পেঁয়াজ কুঁচি
– কয়েকটা কাঁচা মরিচ (ঝাল বুঝে)
– ৪/৫ টেবিল চামচ তেল বা বেশী

(আপনি চাইলে সামান্য চিনি ব্যবহার করতে পারেন, স্বাদ আরো বাড়বে, তবে আমি এই রান্নায় চিনি ব্যবহার করি নাই, তাতেও স্বাদ মাশাআল্লাহ হয়েছে।)

প্রস্তুত প্রনালীঃ
কাঁকরোল প্রিপারেশনঃ 

ছবি ১, এভাবে স্লাইস করে কেটে নিন।

ছবি ২, হলুদ, মরিচ এবং লবন দিয়ে দিন

ছবি ৩, ভাল করে মেখে রেখে দিন।

পেঁয়াজ মরিচ প্রিপারেশনঃ 

ছবি ৪, পেঁয়াজ মরিচ কাটুন

ছবি ৫, সামান্য লবন যোগে মেখে/মলে রাখুন।

মুল রান্নাঃ

ছবি ৬, ফ্রাই প্যানে তেল গরম করে কাঁকরোল গুলো দিয়ে দিন।

ছবি ৭, ভাঁজুন। আগুন সব সময়েই মাধ্যম আঁচে, সময় লাগবে একটু।

ছবি ৮, ঢাকনা দিয়ে রাখুন। মিনিট ১০/১৫ লাগবে। তবে মাঝে মাঝে নাড়িয়ে দিতে ভুলবেন না। আর দাঁড়িয়ে থাকতে হবে যাতে পুড়ে না যায়।

ছবি ৯, কাঁকরোল নরম হয়ে গেলে পেঁয়াজ মরিচ কুঁচি দিন।

ছবি ১০, ভাল করে মিশিয়ে নিন এবং আবার ঢাকনা দিন।

ছবি ১১, এই রকম হয়ে যাবে।

ছবি ১২, শেষের দিকে ঢাকনা তুলে দিন এবং আপনি কেমন ভাঁজা চান সেই মত রাখুন।

ছবি ১৩, ফাইন্যাল লবন দেখুন, লাগলে সামান্য চিটিয়ে দিন, না লাগলে ওকে! ব্যস, হয়ে গেল। চাইলে আপনি আরো পোড়া পোড়া করতে পারেন।

ছবি ১৪, অসাধারণ। এত সহজে এত চমৎকার রান্না!