চাকরি পেয়ে যা বললেন সেই বাবা | |

চাকরি পেয়ে যা বললেন সেই বাবা

চাকরি নেই তিন মাস ধরে, সন্তানের ক্ষুধার যন্ত্রণা মেটাতে তাই বাধ্য হয়ে সুপার শপ স্বপ্ন থেকে দুধ চুরি করেছিলেন বাবা। সেটা আবার ধরাও পড়ে গিয়েছিল। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবর ভাইরাল হবার পর ঘটনা নজরে আসে স্বপ্ন কর্তৃপক্ষের। অবশেষে সেই বাবাকে নিয়োগপত্র দিয়েছে সুপারশপ স্বপ্ন।

রবিবার (১২ মে) বিকেলে খিলগাঁও জোনের সহকারী কমিশনার জাহিদুল ইসলামের উপস্থিতিতে স্বপ্ন’র হেড অব মার্কেটিং তানিম করিম তার হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন।

চাকরি পাওয়ার পর অনুতপ্ত সেই বাবা জানালেন, সন্তানের মুখের কথা ভেবে তিনি কাণ্ডজ্ঞান হারিয়েছিলেন। সন্তানের জন্য বাকি জীবনও কাটাবেন সততার সাথে।

অনুতপ্ত সেই বাবা বলেন, ‘অনেকদিন বেকার ছিলাম। প্রেসার নিতে পারছিলাম না। যেটা আমি চাইনি, হেতায়েত জ্ঞান না থাকায় সেটি করে ফেলেছি। এর জন্য আমি লজ্জিত।’

স্বপ্ন জানায়, মানবিক বিবেচনা থেকেই বাবার পাশে দাঁড়ানো তাদের। এখন সময় সেই বাবার সততা প্রমাণের।

স্বপ্নের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসির বলেন, ‘এমন ঘটনা মর্মস্পর্শী। এখন সেই বাবাকে সততা এবং দক্ষতা দিয়ে ক্যারিয়ারে এগোতে হবে।’

দক্ষতার সাথে কাজ করলে স্বপ্নের কোনো কর্মী তাকে কখনোই কটু কথা বলবে না বলেও সাফ জানিয়ে দেয় প্রতিষ্ঠানটি।