তীব্র গরমের মাঝে বৃষ্টির পূর্বাভাস | |

তীব্র গরমের মাঝে বৃষ্টির পূর্বাভাস

বৈশাখ কেবল এসেছে। আর এরই মধ্যে রেকর্ড পরিমাণে তাপমাত্রা বেড়েছে। বাংলা নতুন বছরের আগের দিন (১৩ এপ্রিল) হতে তাপমাত্রা ২৫ থেকে ৩৫ ডিগ্রি পর্যন্ত ওঠা-নামা করছে।

১৬ এপ্রিল ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন সারা দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল চুয়াডাঙ্গা জেলায়, ৩৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মাঝে মাঝে কালবৈশাখী ঝড় হলেও তীব্র রোদ ও ভ্যাবসা গরম কমছে না। এই গরম সহ্য করতে পারছে না শিশু ও বয়স্করা। ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে যেতে হচ্ছে তাদের।

এপ্রিলের বাকি দিনগুলোয় গরম আরও বাড়ার সম্ভাবনা দেখছেন আবহাওয়াবিদরা।

এদিকে দেশে অব্যাহত তাপমাত্রা বৃদ্ধির পাশাপাশি আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সকালে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এতে বলা হয়, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, খুলনা ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আবহাওয়া প্রধানতঃ শুষ্ক থাকতে পারে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গতকাল দেশে রাঙামাটিতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী তিনদিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের এপ্রিল মাসের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ মাসে দেশের উত্তর ও উত্তর–পশ্চিমাঞ্চলে বেশ কয়েকটি দাবদাহ বয়ে যেতে পারে। এর প্রভাবে তাপমাত্রা প্রায় ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস হতে পারে।

দাবদাহের পাশাপাশি ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাসও দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এ ছাড়া সাগরে সৃষ্টি হতে পারে বেশ কয়েকটি নিম্নচাপ। একটি নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিয়ে আঘাত হানতে পারে দেশের উপকূলীয় অঞ্চলে। ঘূর্ণিঝড়ের সঙ্গে বৃষ্টি হলে গরম হয়তো কিছুটা কমবে।

তবে ঝড়বৃষ্টি যা-ই হোক না কেন, এপ্রিল মাসে গরমের হাত থেকে খুব সহজে হয়তো রক্ষা পাওয়া যাবে না। কিন্তু তাপমাত্রা কতটুকু উঠতে পারে, সেটি এখন দেখতে হবে।

২০১৪ সালের ২৪ এপ্রিল গত পাঁচ দশকের মধ্যে রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল। আবহাওয়া অফিসের তথ্য অনুযায়ী, ১৯৬০ সালের ৩০ এপ্রিল ঢাকায় তাপমাত্রা ছিল ৪২ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ১৯৭২ সালের ১৮ মে রাজশাহীতে ৪৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ওঠে।