উন্নত বিশ্বের আদলে ফায়ার সার্ভিসকে ঢেলে সাজানো হবে | |

উন্নত বিশ্বের আদলে ফায়ার সার্ভিসকে ঢেলে সাজানো হবে

ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বেশি ব্যস্তময় ও চ্যালেঞ্জিং মুহুর্ত পার করছে ফায়ার সার্ভিস। বর্তমানে অগ্নিকাণ্ড এক মূর্তিমান উদ্বেগ। প্রতিনিয়তই কোথাও না কোথাও অগ্নিকাণ্ড ঘটছে। আর এসব ঘটনায় নিরলস শ্রম দিয়ে যাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।

সম্প্রতি রাজধানী ঢাকার চকবাজার ও বনানী এফআর টাওয়ারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটনায় জাতি স্তম্বিত, শোকে মুহ্যমান।

অগ্নিনির্বাপক কর্মীদের দক্ষতা ও শ্রমে এসব ভয়াবহ আগুন নেভালেও প্রাণহানী ঘটেছে অনেক। এ ধরণের অগ্নিকাণ্ড থেকে দ্রুত উদ্ধার ও ক্ষয়ক্ষতি কমানোর উদ্দেশে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সকে আরও শক্তিশালী ও আধুনিক করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

উন্নত বিশ্বের আদলে ফায়ার সার্ভিসকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে জানিয়ে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপারেশন) মেজর শাকিল নেওয়াজ বলেন, ইতিমধ্যে সরকার ফায়ার সার্ভিসকে যুগোপযোগী করতে নানা ইন্সট্রুমেন্ট ক্রয় করেছে। পাশপাশি আগুন লাগলে ভুক্তভোগীরা যাতে আগুন নিভিয়ে ফেলতে পারে সেসব উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় ফায়ার সার্ভিসের সক্ষমতা অনেক বেড়েছে। প্রত্যেকটি উপজেলায় ফায়ার স্টেশন স্থাপন করা হচ্ছে।

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনতে প্রতিবছর স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের অন্তত দেড় লাখ কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার চিত্র পরিবর্তন হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, দেশ যেমন এগুচ্ছে। তেমনি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সেবা ও কর্মতৎপরতাও অনেকাংশে বেড়েছে।

উল্লেখ্য, সূত্র মতে নির্মাণাধীনসহ দেশে মোট ফায়ার স্টেশনের সংখ্যা ৫৬৫টি এবং এতে কাজ করছেন প্রায় ১৫ হাজার কর্মী।