অনন্ত জলিলের ৫৩ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়েছে গাড়িচালক | |

অনন্ত জলিলের ৫৩ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়েছে গাড়িচালক

চলচ্চিত্র অভিনেতা ও পোশাক শিল্প ব্যবসায়ী অনন্ত জলিলের ৫৩ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়েছেন তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের গাড়িচালক শহিদ মিয়া।

রবিবার সাভারের এ জে আই গ্রুপের ফ্যাক্টরির গ্যাস বিলের টাকা নিয়ে ব্যাংকে যাওয়ার পথে গাড়ি রেখে পালান চালক। এই ঘটনায় মামলা হয়েছে।

নিজের ফেরিফাইড ফেসবুক পেজে এই তথ্য অনন্ত জলিল নিজেই জানিয়েছেন। পালিয়ে যাওয়া চালককে ধরতে তিনি সবার সহযোগিতা চেয়েছেন।চালকের জাতীয় পরিচয়পত্রসহ সংশ্লিষ্ট যাবতীয় কাগজপত্রের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন অনন্ত জলিল। চালবের সন্ধান দিতে পারলে নিজ হাতে সন্ধানদাতাকে পুরস্কৃত করবেন বলেও ঘোষণা দেন তিনি।

ফেসবুক পোস্টে অনন্ত জলিল লিখেছেন, ‘আমার ভক্তদের কাছে আমি আজকে একটি সাহায্য চাচ্ছি। আপনারা সবাই জানেন ১৯৯৬ সাল থেকে সাভারের হেমায়েতপুরে অবস্থিত এ জে আই গ্রুপ সুনামের সুনামের সঙ্গে পরিচালিত হয়ে আসছে।

আজ আমার ফ্যাক্টরির এক ড্রাইভার মো. শহিদ মিয়া ৫৩ লক্ষ টাকা ফ্যাক্টরির গ্যাস বিল না দিয়ে টাকাগুলো নিয়ে পালিয়ে গেছে। ফ্যাক্টরির একজন অ্যাকাউন্টেন্ট মো. জহির তার সঙ্গে ছিল। জহির সোনালী ব্যাংকে ভ্যাট দিতে ঢুকেছিল এবং গাড়িতে টাকাগুলোসহ ড্রাইভারকে সাবধানে দেখাশোনার জন্য বলে গিয়েছিল। জহির সোনালী ব্যাংকে যাওয়ার পর সে সুযোগ বুঝে টাকাগুলো নিয়ে গাড়ি রেখে পালিয়ে যায়। আমি তার যাবতীয় ইনফরমেশন শেয়ার করলাম। অলরেডি থানায় মামলা করা হয়েছে। এই প্রতারককে ধরিয়ে দিতে পারবে তাকে আমি অনন্ত জলিল নিজ হাতে পুরস্কৃত করবো ইনশাল্লাহ।’

চালকের সন্ধান পেলে তার প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান মো. মীর (০১৭১১৭৩৯৫৪১)এবং মানবসম্পদ বিভাগের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মো. আসাদের (০১৬৭৫৫৯৭৫৬)সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করেছেন আলোচিত এই চলচ্চিত্র নির্মাতা।