প্রচণ্ড ঝড়ে রাজধানীতে তিনজনের মৃত্যু | |

প্রচণ্ড ঝড়ে রাজধানীতে তিনজনের মৃত্যু

হঠাৎ প্রচণ্ড ঝড় বয়ে গেছে রাজধানী ঢাকার ওপর দিয়ে। ঝড়োবাতাসে গাছ ভেঙে পড়ে এক নারী ও মাথায় ইট পড়ে দুজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও বিভিন্ন সড়কে গাছ ও বিদ্যুতের খুঁটি উপরে পড়ে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হয়। বিদ্যুৎহীন হয়েছে অনেক এলাকা।

রবিবার সন্ধ্যায় শিলা বৃষ্টির সঙ্গে শুরু হওয়া এ ঝড় বছরের প্রথম কালবৈশাখী বলে জানাচ্ছে আবহাওয়া অফিস। ঝড়ে সংসদ ভবন এলাকায় গাছ ভেঙে পড়ে মিলি ডি কস্তা (৬০) নামে এক নারী মারা গেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন শেরে বাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি) জানে আলম। তিনি পাশের মনিপুরি পাড়ায় থাকতেন। ধারণা করা হচ্ছে তিনি সান্ধ্যকালীন হাঁটাহাটি করছিলেন।

অন্যদিকে ঝড়ের সময়ই পুরানা পল্টন মোড়ে চায়ের গলিতে উঁচু ভবন থেকে ইট পড়ে নিহত হন মো. হানিফ (৪৫) নামে এক চা দোকানি। হানিফকে আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

একইভাবে শেওরাপাড়াতেও মাথায় ইট পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তবে মিরপুর মডেল থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক আব্দুর রহিম ঢাকাটাইমসকে জানান, এরকম একটি খবর পেয়ে পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়েছে। তবে কারো মৃত্যু হয়েছে কি না তা নিশ্চিত করতে পারেননি তিনি।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের তথ্য অনুযায়ী, ঝড়ে অন্তত ২৫টি স্থানে গাছ পড়ার ঘটনা ঘটেছে। হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের পাশে একটি সিএনজি অটোরিকশা ও প্রাইভেটকারের ওপর গাছ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। গাছ উপড়ে পড়ে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে অনেক এলাকা বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। রাজধানীর ইস্কাটন, ধানমন্ডি ও খিলগাঁওসহ অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ নেই বলে জানা গেছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পিডিবি।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ জানান, রাজশাহী, বগুড়া, পাবনা, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, ময়মনসিংহ, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, কুমিল্লা ও সিলেট অঞ্চলেও ঝড় ও শিলা বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। এসব অঞ্চলসমূহের নদী বন্দরসমূহকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত (পুনঃ) ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।