পাঁচ শিশু ‘অপহরণ’, চার ঘণ্টায় উদ্ধার | |

পাঁচ শিশু ‘অপহরণ’, চার ঘণ্টায় উদ্ধার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরে পাঁচটি শিশুকে কৌশলে তুলে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়ার সাড়ে চার ঘণ্টার মধ্যেই তাদেরকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। আটক করা হয়েছে এক যুবককে।

ওই যুবক আইসক্রিম খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে শিশুদেরকে নিয়ে নিয়ে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। তার নাম রবিউল ইসলাম। এই শিশুদেরকে নিয়ে কী করার চেষ্টা হচ্ছিল, সে বিষয়টি তদন্ত করছে বাহিনীটি।

শনিবার সকালে শিশুদেরকে ধরে নেওয়ার পর ১০টার দিকে তাদের অভিভাবকদের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ করা হয়। আর বেলা আড়াইটার দিকে শহরের ভুতপুকুর এলাকা থেকে রবিউলকে আটক করা হয়।

উদ্ধার হওয়া শিশুরা হলো- বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের পীরপুকুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রহমান, একই এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে সেলিম হোসেন, পীরপুুকুর গ্রামের কালাম হোসেনের ছেলে ইসমাইল হোসেন, নাইমুল এর ছেলে কাব্বির হোসেন এবং সাব্বির হোসেন। এদের সবার বয়স চার থেকে আট বছরের মধ্যে।

আটক রবিউলের বাড়ি সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের পলশা এলাকায়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউর রহমান বলেন, ‘সকাল ১০টার দিকে ওই পাঁচ শিশুর পরিবার নিখোঁজের অভিযোগে থানায় ডায়েরি করেন। এর পরই পুলিশ তাদের খুঁজতে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে তল্লাশি চালায়। দুপুরে ভুতপুকুর এলাকায় রবিউল ওই পাঁচ শিশুকে নিয়ে একটি ভ্যানে করে আইসক্রিম বিক্রি করার সময় শিশুগুলো কান্নাকাটি শুরু করলে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হয় এবং পুলিশে খবর দেয়। পরে সদর মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) ইদ্রিস আলীর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই পাঁচ শিশুকে উদ্ধার ও রবিউলকে আটক করে।’

ইদ্রিস আলী বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, অপহরণকারী রবিউল সকালে পীরপুকুর এলাকায় আইসক্রিম বিক্রির সময় শিশুগুলোকে প্রলোভন দেখিয়ে নিয়ে আসে। পরে তাদেরকে উদ্ধারও করা হয়।’

শিশুদের যাচাই-বাছাই শেষে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা হয়েছে।