ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের সহযোগিতা করাই সরকারের কাজ: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বলেছেন, ব্যবসা করা সরকারের কাজ নয় বরং ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের সহযোগিতা করাই সরকারের কাজ।

বুধবার ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৯ এর উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পশ্চিম পাশের মাঠে আয়োজিত বাণিজ্য মেলার প্রধান গেটে ফিতা কেটে এই মেলার উদ্বোধন করেন তিনি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) যৌথ আয়োজনে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবার মেলার গেট নির্মাণ করা হয়েছে মেট্রোরেলের আদলে। মেলাপ্রাঙ্গণ জুড়ে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নচিত্রও তুলে ধরা হবে।

এর আগে গত মঙ্গলবার বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী জানান, প্রথমবারের মতো এবার অনলাইনে মেলার টিকেট কেনা যাবে। টিকিটের দাম ধরা হয়েছে ৩০ টাকা। তবে অপ্রাপ্ত বয়স্করা ২০ টাকায় টিকিট কিনতে পারবেন।

প্রতিবছর ১ জানুয়ারি থেকে বাণিজ্য মেলা শুরু হয়। তবে এবছর একাদশ জাতীয় নির্বাচনের কারণে কারনে ১ তারিখে শুরু হয়নি মেলা। যদিও উদ্বোধনের দিন থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৩০ দিন চলবে এই মেলা।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এবারের মেলায় স্থান পাবে সংরক্ষিত নারী স্টল ২০টি, প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন ৬০টি, প্রিমিয়ার মিনি প্যাভিলিয়ন ৩৮টি, সাধারণ প্যাভিলিয়ন ১৮, সাধারণ মিনি প্যাভিলিয়িন ২৯টি, প্রিমিয়ার স্টল ৬৭টি, রেস্টুরেন্ট তিনটি, সংরক্ষিত প্যাভিলিয়ন নয়টি, সংরক্ষিত মিনি প্যাভিলিয়ন ছয়টি ও বিদেশি প্যাভিলিয়ন ২৬টি। সবমিলিয়ে ৫৫০টি স্টল থাকবে।

মেলায় সার্বক্ষণিক নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পোশাকধারী পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি সাদা পোশাকে গোয়েন্দা পুলিশ সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়া মেলায় থাকবে ফায়ার ইউনিটি ও মেডিকেল টিম। মেলায় সব ধরনের হকার ও ভিক্ষুক নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ফুডকোর্টের অনিয়ম রুখতে বাধ্যতামূলক রাখতে হবে খাবারের মূল্যতালিকা।

মেলার বিভিন্ন স্থানে পাঁচটি বিশ্রামাগার থাকছে। ধূলো কমাতে পানি ছিটানো হবে। এছাড়া ইভটিজিং রোধে মেলা প্রাঙ্গণে পুলিশের বিশেষ টিম দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়া মেলায় বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও ভোক্তা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক নজরদারি করবেন। মা ও শিশু কেন্দ্র, শিশুপার্ক, ই-পার্ক ও পর্যাপ্ত এটিএম বুথ থাকছে মেলায়।