পটুয়াখালী হইতে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হতে আগ্রহী ‘এ্যাড.মাহিনুর আক্তার মাহি’ | |

পটুয়াখালী হইতে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হতে আগ্রহী ‘এ্যাড.মাহিনুর আক্তার মাহি’

এ্যাড.মাহিনুর আক্তার মাহি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামীলীগের শাহবাগ থানার মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি বিএনপি-জামাতের শাসনামলে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা এবং শারীরিক মানসিক অত্যাচারের শিকার হয়েছেন বহুবার।

হাতেখড়ি পড়ে তার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির মধ্য দিয়ে। জোট সরকারের জেলজুলুম,কারানির্যাতনেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবীত এ্যাড.মাহি জননেত্রীর নির্দেশনায় তৎকালীন ডিসি কোহিনূর এর বিরুদ্ধে বাদী হয়ে মামলা করেন।

নেত্রীমুক্তি আন্দোলন এর এ নেত্রী ১/১১তে বিশেষ ভূমিকায় অবতীর্ণ হওয়া সহ সিইসি ঘেরাও আন্দোলনে আহত হয়ে বর্তমান সাংসদ ইলিয়াস মোল্লার সাথে ২নং আসামি হন। পরবর্তীতে তিনি সাবেক সাংসদ সাবিনা আক্তার তুহিনের নেতৃত্বে বাংলাদেশ যুবমহিলা লীগের শাহআলী থানার পর্যায়ক্রমে সাধারন সম্পাদক, সভাপতি নির্বাচিত হন।

সর্বশেষ ঢাকা মহানগর উত্তর যুবমহিলা লীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েও অব্যাহতি নেন। বর্তমানে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জনাব শাহে আলম মুরাদের নেতৃত্বে রাজনৈতিক কমর্কান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন।

জননেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের মহাসড়কে নিবেদিত প্রাণ এই নেত্রী আগামীতে

পটুয়াখালী-৪(কলাপাড়া,রাঙ্গাবালী,মহিপুর) আসনে একাদশ জাতীয় সংসদে সংরিক্ষত মহিলা আসনে নির্বাচন করতে আগ্রহী।

রাজনীতির পাশাপাশি তিনি সামাজিক সংগঠন ঢাকাস্থ কলাপাড়া উপজেলা সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন।

জীবনের দীর্ঘ সময় নিজেকে আন্দোলন-সংগ্রামে নিয়োজিত রেখে, দলের দুঃসময়ে ও চাপে বিচ্যুত না হয়ে আওয়ামী লীগের একজন নিষ্ঠাবান ও নিবেদিত প্রান কর্মী হিসেবে নিজেকে প্রমান করেছেন। এখন ও অবিচল আস্থার সাথে আওয়ামী আদর্শ লালন করে যাচ্ছেন।

উনার দৃঢ় বিশ্বাস উক্ত আসন ও এলাকার জনগনের কথা চিন্তা করে জননেত্রী ও চারবারের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই আসন থেকে তাকে নমিনেশন দিয়ে সরকারের হাতকে আরো শক্তিশালী করবেন।