বড়পুকুরিয়া খনিতে কয়লার নিচে চাপা পড়ে চীনা শ্রমিকের মৃত্যু | |

বড়পুকুরিয়া খনিতে কয়লার নিচে চাপা পড়ে চীনা শ্রমিকের মৃত্যু

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে বেল্ডের বাংকারে কয়লার নিচে চাপা পড়ে সান জিং সেন (৩৫) নামে এক চীনা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। একই ঘটনায় রেজাউল ইসলাম (৪৮) নামে এক বাংলাদেশি শ্রমিক আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে খনির উপরিভাগে সার্ফেস বেল্ডের বাংকারের নিচে জমে থাকা কয়লা অপসারণের সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত চীনা শ্রমিক সান জিং সেন (পাসপোর্ট নং-ই ৭০৩৬২৮২০) চীনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সিএমসি-এক্সএমসির অধীনে কর্মরত ছিলেন।

আহত বাংলাদেশি শ্রমিক কয়লা খনির পার্শ্ববর্তী পার্বতীপুর উপজেলার কালুপাড়া গ্রামের মনছুর আলীর ছেলে। আহত অবস্থায় তাকে বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানির নিজস্ব হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. ফজলুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, রাতের শিফটে কাজ করার সময় বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার সময় সার্ফেসের বেল্ডে কয়লার সঙ্গে ভূগর্ভ থেকে উঠে আসা পাথর জমে বেল্ড বন্ধ হয়ে যায়। এসময় বন্ধ হওয়া বেল্ডের বাংকারে জমে থাকা কয়লা ও পাথর অপসারণ করতে গেলে জমে থাকা কয়লার নিচে চাপা পড়েন কর্মরত চীনা শ্রমিক সান জিং সেন ও বাংলাদেশি শ্রমিক রেজাউল ইসলাম।

সেখান থেকে উভয়কে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। গুরুতর আহত হওয়ায় চীনা শ্রমিক সান জিং সেনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত বাংলাদেশি শ্রমিক রেজাউল ইসলামকে বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লি. এর নিজস্ব হাসপাতালে নেয়া হয়।

বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরও বলেন, এই ঘটনার পর খনির কয়লা উত্তোলন স্বাভাবিক রয়েছে। নিহত চীনা শ্রমিকের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে তার দেশে পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।