ফের শুরু হচ্ছে ট্রাফিক সচেতনামূলক কার্যক্রম

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে দুর্গাপূজার পর আবারও ট্রাফিক সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

শনিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের অংশগ্রহণে আয়োজিত ‘ট্রাফিক সচেতনতামূলক সমাবেশে’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, পূজার পরই ১৫ দিন বা মাসব্যাপী ফের ট্রাফিক সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে আমরা এ কাজ করবো। এ কার্যক্রমে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

ধারাবাহিক কার্যক্রমের ফলে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় কিছুটা পরিবর্তন এসেছে, তবে এটা ভিজ্যুয়াল করার জন্য পুলিশের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

কমিশনার বলেন, অন্য কর্মজীবীরা আট ঘণ্টা কাজ করলেও পুলিশ সদস্যরা ১২ থেকে ১৮ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজ করে। ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার সবচেয়ে প্রধান সমস্যা আমাদের আইন না মানার সংস্কৃতি।

তিনি বলেন, ঈদে ৩০-৪০ লাখ মানুষ ঢাকা ছেড়ে যায়, তখন যানজট থাকে না। এর মানে এ শহর অতিরিক্ত মানুষের চাপ নিতে পারছে না। অপর্যাপ্ত সড়কের পাশাপাশি আমাদের সড়কে ইঞ্জিনিয়ারিং ও পরিকল্পনার ত্রুটি রয়েছে। এজন্য ভৌত-অবাকাঠামোগত পরিবর্তন জরুরি হয়ে পড়েছে।