‘পার্বত্য চট্টগ্রামে সংঘাত নয়, শান্তির মধ্য দিয়ে আসবে সমৃদ্ধি’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে আর কোনো সংঘাত নয়, শান্তির মধ্য দিয়ে আসবে সমৃদ্ধি। রোববার (২৮ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর বেইলি রোডে শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার শান্তি চুক্তির অধিকাংশই বাস্তবায়ন করেছে, বাকীগুলোও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি সমস্যা সমাধানের জন্য ভূমি কমিশন গঠন করে দেয়া হয়েছে। ভূমি কমিশনকে পার্বত্যবাসীর সহায়তা করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের জন্য বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষা, যোগাযোগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন করা হয়েছে। সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিল করা হলেও পার্বত্য চট্টগ্রাম ও সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য অগ্রাধিকার দিতে পিএসসিকে নির্দেশনা দেয়া আছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তি চুক্তি মোতাবেক তাদেরকে আমরা পুনর্বাসন করি। চুক্তি অধিকাংশই আমরা বাস্তবায়ন করেছি। তবে এখনো কিছু চলমান রয়েছে। এর বাইরেও আমরা সার্বক্ষণিক উন্নয়নের জন্য ব্যাপক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে দিয়েছি। রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করেছি। যার ফলে আর্থসামাজিক ভাবে মানুষ উন্নয়ন হয়েছে। সারা বাংলাদেশে আমরা যে উন্নয়ন করেছি, পার্বত্য চট্টগ্রামে আরো বিশেষভাবে বরাদ্দ দিয়েছি, প্রকল্প দিয়েছি। দুই দশকে এই অঞ্চল অবহেলিত ছিল। তাই আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করে সেখানে আমরা বরাদ্দ দিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যদিও আমরা কোটা প্রত্যাহার করেছি। তবে, সেখানে আমরা নির্দেশ রয়েছে। আমি পিএসসিকে বলে দিয়েছি পার্বত্য চট্টগ্রাম বা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী পাহাড়ি হোক, সমতল হোক সেখানে যে প্রাপ্তি থাকবে, তা চাইলে দিতে পারবে।’