আসাম সীমান্তে ‘ডিজিটাল বেড়া’ দিবে ভারত | |

আসাম সীমান্তে ‘ডিজিটাল বেড়া’ দিবে ভারত

আসামের সঙ্গে বাংলাদেশ সীমান্তে ডিজিটাল স্মার্ট বেড়া দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। আগামী নভেম্বর মাস থেকে এই বেড়া নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

সোমবার কাশ্মিরে পাকিস্তান সীমান্তে পরীক্ষামূলকভাবে ইসরায়েলি প্রযুক্তির ডিজিটাল স্মার্ট বেড়া দেওয়ার কাজ উদ্বোধন করে জম্মু সিটিতে ভারতীয় গণমাধ্যমের কাছে এই কথা জানান রাজনাথ সিং।

বাংলাদেশ থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশ এখন ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির অন্যতম রাজনৈতিক ইস্যু। কথিত এই অনুপ্রবেশ বন্ধ করার কথা বলেই ২০১৫ সালে আসামে প্রথমবারের মতো ক্ষমতায় আসে বিজেপি। এখন পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খণ্ডেও অনুপ্রবেশ ইস্যুকে রাজনৈতিক ঘুটি হিসেবে ব্যবহার করার জন্য উঠেপড়ে গেরুয়া শিবির।

ডিজিটাল বেড়া সম্পর্কে রাজনাথ সিং বলেন, অদৃশ্য ইলেক্ট্রনিক বেড়ার মাধ্যমে সীমান্তরক্ষীদের হতাহত হওয়ার ঘটনা কমে আসবে। তাছাড়াও স্থল, জল, আকাশ এমনকি মাটির নিচেও এই প্রতিরোধ ব্যবস্থা কার্যকর হওয়ায় সীমান্তরক্ষীদের সশরীরে উপস্থিত থাকার ওপর নির্ভরতা কমবে। সীমান্তের নদী, পাহাড় বা বনাঞ্চল যেকোনো জায়গা দিয়েই অনুপ্রবেশের চেষ্টা হোক না কেন প্রযুক্তির সহায়তায় সহজেই সনাক্ত করতে পারবে বিএসএফ।

সমন্বিত সীমান্ত ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় পাকিস্তান ও বাংলাদেশ সীমান্তে প্রথমবারের এ ধরনের বেড়া তৈরি করতে চলেছে ভারত সরকার। দুই জায়গাতেই উচ্চ প্রযুক্তিসম্পন্ন সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে এই বেড়া তৈরি করা হবে।