সাংবাদিকদের ওপর হামলায় রাজনৈতিক দুর্বৃত্ত | |

সাংবাদিকদের ওপর হামলায় রাজনৈতিক দুর্বৃত্ত

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সাংবাদিকদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। এ হামলাকে রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন আখ্যা দিয়ে তারা বলেন, সরকারকে এমন নগ্ন হামলার বিচার করতে হবে। সাংবাদিক সমাজ এ ঘটনার কঠিন জবাব দিতে প্রস্তুত আছে।

মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) ব্যানারে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এসব কথা বলেন সাংবাদিক নেতারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মোল্লা জালাল, বাংলাদেশ সাংবাদিক ফেডারেল ইউনিয়ন (বিএফইউজ) এর সাবেক সভাপতি মনজুরুল ইসলাম বুলবুল, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সভাপতি সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের উপর হামলা ও নির্যাতন গণমাধ্যমের স্বাধীনতার পরিপন্থী। সমাবেশ থেকে সরকারকে তিন দিনের আল্টিমেটাম দেয়া হয়।

সমাবেশে বিএফইউজের সভাপতি মোল্লা জালাল বলেন, শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে রাজনৈতিক দুর্বৃত্তরা অনুপ্রবেশ করে সাংবাদিকদের ওপর হামলা করেছে। যেটা দেখে সারা জাতির লজ্জায় মাথা হেট হয়ে গেছে।

বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল ইসলাম বুলবুল বলেন, কলম সৈনিক সাংবাদিকদের উপর আক্রমণ করে দুর্বৃত্তরা গুজব রটনাকারীদের পক্ষ নিয়েছে। আমরা পেশাদারিত্বের সাথে আমাদের দায়িত্ব পালন করতে চাই। আপনারা আমাদেরকে কাজ করতে দিন। আমাদেরকে সঠিক তথ্য পরিবেশন করতে দিন। যারা আমাদের পেশাদারিত্বের সঙ্গে কাজ করতে দিতে চায় না। আমরা মনে করি তারা সাংবাদিকদের শত্রু।

ডিআরইউর সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, আমরা দেখেছি এ আন্দোলনে সাংবাদিকরা যখন সংবাদ সংগ্রহ করতে গেছে তাদেরকে টার্গেট করে বেছে বেছে হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা‌। আমরা এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। কারা হামলা করেছে প্রশাসন তাদের কে দেখেছে তাদের ছবি টিভিতে অনলাইনে সব জায়গায় ছড়িয়ে আছে। তাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না এটা দু:খজনক।

ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ বলেন, এই গণতান্ত্রিক দেশেই এই গণতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় সাংবাদিকদের উপর এমন নগ্ন হামলা মেনে নেওয়া যায় না। মন্ত্রীরা বলছেন আপনারা আমাদেরকে তালিকা দিন আমরা তাদেরকে গ্রেপ্তার করবো। আমরা বলব আমরা কেন তাদের তালিকা দিবো। তাদের ছবি অনলাইনে আছে। আপনারা দেখে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসুন। আমরা বিশ্বাস করি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের বিচার হবে। আর যদি এটা বন্ধ না হয় তাহলে আমাদের সাংবাদিক সমাজ বসে থাকবে না। এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে।

সভাপতির বক্তব্যে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য বলেন, আপনারা কি পত্র পত্রিকা পড়েন না, আপনারা কি সংবাদ দেখেন না আপনারা এখনও পর্যন্ত আহত সাংবাদিকদের কোন খোঁজখবর নিলেন না। তথ্যমন্ত্রী আপনার কাজটা কি? আপনি এখন পর্যন্ত আহত সাংবাদিকদের খোঁজ নিতে পারলেন না। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।

প্রসঙ্গত, গত ৫ আগস্ট নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে রাজধানীর সাইন্স ল্যাবরটারি এলাকায় একদল সন্ত্রাসীর হামলায় আহত হন ৫ ফটো সাংবাদিক।