বঙ্গবন্ধু বিশ্বের নিপীড়িত শোষিত ও অধিকার বঞ্চিত মানুষের অনুপ্রেরণা : শিরীন শারমিন চৌধুরী | |

বঙ্গবন্ধু বিশ্বের নিপীড়িত শোষিত ও অধিকার বঞ্চিত মানুষের অনুপ্রেরণা : শিরীন শারমিন চৌধুরী

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্বের নিপীড়িত, শোষিত ও অধিকার বঞ্চিত মানুষের অনুপ্রেরণা ও মূর্তপ্রতীক।
তিনি গতকাল ঢাকার সংসদ সচিবালয় আবাসিক কমপ্লেক্স চত্বরে ১৫-আগস্ট জাতীয় শোক দিবস-২০১৮ উপলক্ষে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
জাতীয় সংসদ সচিবালয় আবাসিক কমপ্লেক্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
স্পিকার বলেন, বাঙ্গালি জাতির অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানোর জন্য হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন লড়াই সংগ্রাম করে গেছেন। তিনি অন্যায়ের কাছে কখনই মাথা নত করেননি। নানান ধরনের জেল-জুলুম এবং অত্যাচার সহ্য করে তিনি বাঙ্গালির অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চিফ হুইপ আ,স,ম ফিরোজ এবং সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো: আবদুর রব হাওলাদার।
শিরীন শারমিন বলেন, বাঙালির অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য শৈশব থেকেই টুঙ্গিপাড়ার খোকা ছিলেন অকুতোভয়। বঙ্গবন্ধুর এক অঙ্গুলির হেলনে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে বাংলার আপামর জনতা রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ৩০ লাখ শহীদ ও ২ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে বাঙ্গালি জাতি ছিনিয়ে এনেছিল স্বাধীনতার লাল সবুজের পতাকা।
তিনি আরো বলেন, ঘাতকরা ১৯৭৫সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনককে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। শুধু হত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি, ইনডেমনিটির মত কালো আইন করে ঘাতকদের রক্ষা করার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঘাতকদের বিচারে আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হয়েছে। এসময় তিনি মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর জীবন আদর্শকে জানার ও বুঝার জন্য সকলের প্রতি উদাত্ত্ব আহবান জানান।
পরে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী দোয়া মাহফিলে শরীক হন।
জাতীয় সংসদ সচিবালয় আবাসিক কমপ্লেক্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি মাসুম বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংসদ সচিবালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।