জুম্মার দিনে কিছু করণীয় কাজ জেনে নিন | |

জুম্মার দিনে কিছু করণীয় কাজ জেনে নিন

যে জন আদব রক্ষা করে জুম’আর সালাত আদায় করে তার প্রতিটি পদক্ষেপের বিনিময়ে আল্লাহ তার জন্য পুরো এক বছরের রোজা পালন এবং রাত জেগে তাহাজ্জুদ পড়ার সমান সওয়াব দান করবে ।

আউস বিন আউস আস সাকাফী (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন:

“জুমা’আর দিন যে ব্যাক্তি গোসল করায় (অর্থাৎ সহবাস করে, ফলে স্ত্রী ফরজ গোসল করে এবং) নিজেও ফরজ গোসল করে, পূর্বাহ্ণে মসজিদে আগমন করে এবং নিজেও প্রথম ভাগে মসজিদে গমন করে, পায়ে হেঁটে মসজিদে যায় (অর্থাৎ কোন কিছুতে আরোহণ করে নয়), ইমামের কাছাকাছি গিয়ে বসে, মনোযোগ দিয়ে খুৎবা শোনে, কোন কিছু নিয়ে খেল তামাশা করে না, সে ব্যাক্তির প্রতিটি পদক্ষেপের জন্য রয়েছে বছরব্যাপী রোজা পালন ও সারা বছর রাত জেগে ইবাদত করার সমতুল্য সওয়াব।” (মুসনাদে আহমাদঃ ৬৯৫৪, ১৬২১৮)

জুমু’আর দিনে কিছু করণীয় কাজ নিচে দেয়া হলো:

১. ফজরের আগে গোসল করা।

২. ফজরের ফরজ নামাজ়ে সূরা সাজদা [সিজদা] ও সূরা দাহর/ইনসান তিলাওয়াত করা।

৩. উত্তম পোষাক পরিধান করা।

৪.সুগন্ধি লাগানো।

৫. প্রথম ওয়াক্তে মসজিদে যাওয়া।

৬. সূরা কাহফ তিলাওয়াত করা।

৭.মসজিদে গিয়ে কমপক্ষে দুই রাকা’আত সুন্নত আদায় করা।

৮. ইমামের কাছাকাছি গিয়ে বসা।

৯.মনযোগ দিয়ে খুৎবাহ শোনা। খুৎবাহ চলাকালীন সময়ে কোন ধরনের কোন কথা না বলা; এমনকি কাউকে কথা বলতে দেখলে তাকে কথা বলতে বারণ করাও কথা বলার শামিল।

১০. রসূলের উপর সারাদিন বেশী বেশী দরূদ পাঠানো।