লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলারডুবি, নিহত ১ | |

লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলারডুবি, নিহত ১

ভোলার তজুমদ্দিনের মেঘনায় এমভি তাশরিফ-৩ লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে এক জেলে নিহত ও সাত জেলে আহত হয়েছেন। আহত চার জেলেকে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত জেলে সুমন (২৩) চাচড়া ইউনিয়নের সফিউল্লাহ ছেলে। আহতরা হলেন, জাহাঙ্গীর মাঝি (৩৮), মঞ্জুর (৪০), জাকির (৩০), মোসলেউদ্দিন (৩৫), ইউনুস (৩৫), মঞ্জু (৩০), বাসেত (৩২)।

জানাজায় রোববার ভোর ৫টায় ঢাকা টু বেতুয়া রুটে তজুমদ্দিনের চাঁচড়াসংলগ্ন মেঘনায় ঘন কুয়াশার মধ্যে তাশরিফ-৩ লঞ্চ মাছ ধরা অবস্থায় জাহাঙ্গীর মাঝির জেলে ট্রলারকে ধাক্কা দিয়ে ডুবিয়ে দেয়। এ সময় পাশে থাকা তাহের মাঝি ডুবে যাওয়া সাত মাঝিমাল্লাকে উদ্ধার করলেও সুমন নিখোঁজ থাকে। ঘটনার ১০ ঘণ্টা পরে বিকাল ৩টার দিকে স্থানীয় জেলেরা নদী থেকে ভেঙে যাওয়া ট্রলারসহ সুমনের লাশ উদ্ধার করে। ট্রলারে থাকা আহত মালিক মোসলেউদ্দিন জানান, ঘন কুয়াশার মধ্যে আমরাও লঞ্চটি দেখতে পাইনি। হঠাৎ ট্রলারের ওপর দিয়ে লঞ্চটি চালিয়ে দিয়ে ডুবিয়ে দেয়, পরে পার্শ্ববর্তী জেলেরা আমাদের ৭ জনকে উদ্ধার করে। এদের মধ্যে প্রথম চারজনকে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে তাশরিফ-৩ লঞ্চের সুপারভাইজার আলমগীর হোসেনের কাছে দুর্ঘটনার কারণ জানতে চাইলে বলেন, ভোররাতে ঘন কুয়াশার কারণে নৌকাটি দেখা যায়নি।

তজুমদ্দিন-মনপুরা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শামীম কুদ্দুছ ভূঁইয়া বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।