‘আফরিনে তুরস্কের সেনাবাহিনীকে কেউ ঠেকাতে পারবে না’ | |

‘আফরিনে তুরস্কের সেনাবাহিনীকে কেউ ঠেকাতে পারবে না’

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেছেন, আফরিনে তুরস্কের বাহিনীকে থামাতে পারবে না সিরীয় বাহিনী। সীমান্তের শহরটিতে কুর্দি ওয়াইপিজি যোদ্ধাদের পাশাপাশি সিরিয়ার সরকারি বাহিনী লড়াই করবে; এমন তথ্য আসার পর তুরস্ক এই হুঁশিয়ারি দিয়েছে।

সোমবার জর্ডানের রাজধানী আম্মানে এক সংবাদ সম্মেলনে তুরস্কের এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কুর্দিশ পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটের (ওয়াইপিজি) যোদ্ধাদের মোকাবেলায় যদি সিরীয় বাহিনী আফরিনে প্রবেশ করে তাহলে তুরস্ক এতে স্বাগত জানাবে।

আফরিনের নিয়ন্ত্রণকারী সিরিয়ার সশস্ত্র গোষ্ঠী ওয়াইপিজি ও তুরস্কের নিষিদ্ধ কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যদি সেটা হয়, তাহলে সমস্যা নেই। তবে যদি তারা ওয়াইপিজে অথবা পিকেকে যোদ্ধাদের রক্ষার জন্য আফরিনে প্রবেশ করে তাহলে তুরস্কের সেনাবাহিনীকে কেউ থামাতে পারবে না।’

সিরিয়ায় কুর্দিশ ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন পার্টি (পিওয়াইডি) ও এই গোষ্ঠীর সশস্ত্র শাখা ওয়াইপিজিকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে মনে করে তুরস্ক। ওয়াইপিজির সঙ্গে পিকেকের সম্পর্ক রয়েছে। এই পিকেকের যোদ্ধারা তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে কয়েক দশক ধরে রক্ত ঝরাচ্ছে।

তুরস্কের পাশাপাশি ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রও পিকেকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর তালিকায় ঠাই দিয়েছে। কাভুসোগলু বলেছেন, সিরিয়ার আঞ্চলিক অখণ্ডতার জন্য আমরা সবসময় সমর্থন প্রকাশ করে আসছি…এটার প্রতি আমাদের সর্বোচ্চ সমর্থন রয়েছে।