ADS
হোম / রাজধানী / বিস্তারিত
ADS

রাজধানীতে হাজারের বেশি মানুষকে ২৮ লাখ টাকা জরিমানা

3 July 2021, 9:35:25

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেশব্যাপী চলা এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউনের তৃতীয় দিনে রাজধানীতে ঘর থেকে বের হয়ে জরিমানা গুনলেন হাজারের বেশি মানুষ। এর মধ্যে প্রায়ে সাড়ে তিনশো পথচারীর কাছ আদায় করা হয়েছে ১০ লাখ টাকা। আর ৭৬১টি গাড়ির চালককে জরিমানা করা হয়েছে প্রায় ১৮ লাখ টাকা ।

শনিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়।

পুলিশ জনায়, সরকারের দেয়া বিধিনিষেধের মধ্যে ঘর থেকে বের হয়ে যারা সন্তোষজনক জবাব দিতে পারছেন না তাদের জরিমানা ও গ্রেপ্তারের আওতায় আনা হচ্ছে।

শনিবার সারাদিনে রাজধানীতে মানুষ ও গাড়ি মিলিয়ে প্রায় ২৮ লাখ টাকা জারিমানা আাদায় করেছে পুলিশ।

আজ সকাল থেকে রাজধানী বিভিন্ন পয়েন্টে চেকপোস্ট বসিয়ে ৩৪৬ জনকে জরিমানা করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) আটটি বিভাগ। তাদের কাছ থেকে ১০ লাখ ৬ হাজার ৪৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। আর ডিএমপি ট্রাফিক পুলিশের চেকপোস্টে জিজ্ঞাসাবাদে গাড়ি নিয়ে বের হয়ে সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারায় ৭৬১টি গাড়িকে জরিমানা করা হয়। ট্রাফিক পুলিশ ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এসব গাড়ির চালককে ১৭ লাখ ৭২ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেছে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে বিনা কারণে ঘরের বাইরে বের হওয়ায় ৩২০ জনকে গ্রেপ্তার ও ২০৮ জনকে জরিমানা করা। একই দিনে ট্রাফিক বিভাগের পুলিশের অভিযানে ৬৮টি গাড়িকে এক লাখ ১৯ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করে।

দেশে গত এক দিনে করোনাভাইরাসে মারা গেছেন আরও ১৩৪ জন, যা মৃত্যুর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড। গত একদিনে শনাক্ত হয়েছেন ৬ হাজার ২১৪ জন। শনাক্তের হার ২৭.৩৯ শতাংশ। ২ জুলাই ৮ হাজার ৪৮৩ জন শনাক্তে হার হয় ২৮.২৭ শতাংশ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানদণ্ড অনুযায়ী, কোনো দেশে টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে থাকলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে ধরা যায়। সে হিসেবে বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেই বলা যায়।

গত ২৫ জুনের পর থেকে দেশে করোনায় প্রতিদিন শতাধিক মৃত্যু হচ্ছে। শনাক্তও হচ্ছেন বিপুল সংখ্যক মানুষ। এ অবস্থার মধ্যে ১ জুলাই থেকে দেশব্যাপী এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এ সময়ে অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের হলে জেল, জরিমানা করা হবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। জনগণকে বিধিনিষেধ মানাতে পুলিশ-র‌্যাবের পাশাপাশি নামানো হয়েছে সেনাবাহিনী, বিজিবি।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনার বিস্তার রোধে আরোপিত বিধিনিষেধ বাস্তবায়নের জন্য ‘ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’- এর আওতায় ১ থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত সারাদেশে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন থাকবে। জেলা ম্যাজিস্ট্রেটরা স্থানীয়ভাবে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় সমন্বয় করবেন বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। বিধিনিষেধ কার্যকরে বিজিবির পাশাপাশি উপকূলে মোতায়েন থাকবে কোস্টগার্ড।

এছাড়াও, সারাদেশের আটটি বিভাগে ১০৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: